ফুটবলে আমি যখন বৈশ্বিক সাপোর্টার

0

নাহিদ খান:

ফুটবল বিশ্বকাপ তো চলেই এলো। বাংলাদেশে সমর্থকদের ধুন্ধুমার লেগে গেছে, আর আমি অবাক হয়ে ভাবছি আপনারা কীভাবে মাত্র একটা দলকে সমর্থন দেন! আমার তো প্রতি ম্যাচে কাকে সমর্থক করবx, তার জন্য গবেষণা করতে হয়! ব্যাপারটা খুলে বলি…

ছোটবেলায় বিশ্বকাপের খেলা দেখতে বসেছি, শিশুদের যা হয় বাবা যে দলের সমর্থক আমিও সে দলের সমর্থক। তো খেলা হচ্ছে ইউরোপের একটা দেশের সাথে দক্ষিণ আমেরিকার একটা দেশের। বাবা দক্ষিণ আমেরিকান দলের সমর্থক, আমিও তাই! আমাদের দল জিতে গেল, আমরা বিরাট খুশি।

ক’দিন বাদে আমাদের সেই দলের খেলা, এবার আফ্রিকার একটা দেশের সাথে। আমিতো বেশ নিশ্চিত কাকে সমর্থন করছি… ওমা, বাবা দেখি আফ্রিকান দলের সমর্থক। আমি বললাম ঘটনা কী? বাবা বিরাট লেকচার দিয়ে দিল যার মধ্যে- আফ্রিকা নিপীড়িত কালো মানুষের মহাদেশ প্রসংগ, দাসপ্রথা নামের ভয়ংকর একটা ব্যাপার একটু আলোচনা, একটু ম্যান্ডেলা, একটু আব্রাহাম লিংকন, রবীন্দ্রনাথের আফ্রিকা বিষয়ক কবিতা, মহাত্মা গান্ধী, বিভূতিভূষনের চাঁদের পাহাড় সবই ছিল! এতো বড়বড় বিষয় কিচ্ছু বুঝলাম না, তবে বুঝলাম আমিও আফ্রিকান দলের সমর্থক!

কিন্তু পরের সপ্তাহে আফ্রিকান নিপীড়িত, নির্যাতিত দেশের খেলা ইউরোপের একটা দেশের সাথে। আমি এইবার এক্কেবারে নিশ্চিতভাবে জানি আমার দল কোনটা। কিন্তু বাবাকে দেখা গেল ইউরোপের দলকে সমর্থন দিচ্ছে! আমি হতবুদ্ধি, ঘটনা বুঝতে পারছি না! বাবা বললx, এই দেশটা ইউরোপের হলে কী হবে, এরা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় যারপরনাই নিগৃহীত হয়েছে, তবু এরা মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে! এরা আবার সমাজতন্ত্রে বিশ্বাসী, সুতরাং এইবেলা আফ্রিকান একনায়কতন্ত্রী শাসকের অরাজক দেশ নয়, বাবার সমর্থন ইউরোপের সমাজতন্ত্রী দেশের প্রতি!

পরের ম্যাচে আবার দলবদল, কারণ ইউরোপের সমাজতন্ত্রী দেশের খেলা এবার খোদ সমাজতন্ত্রের মা-বাবা সোভিয়েত ইউনিয়নের সাথে। কিন্তু সেই সোভিয়েত ইউনিয়নের খেলা যখন সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাথে, বাবা আবার একটা বিরাট লেকচার দেয়, ‘এই দল প্রথমবার কোয়ালিফাই করেছে, নবীন দলকে সমর্থন দিতে হয়’!

তো সবমিলিয়ে ব্যাপারটা এমন দাঁড়ালো যে আমি কোন দলকে সমর্থন করবো সেটা নির্ভর করে ইতিহাস, সমাজ, অর্থনীতি, রাজনীতি এসবের ওপর! জেনারেলাইজ করলে মোটামুটিভাবে বলা যায় অপেক্ষাকৃত দুর্বল, গরীব, নবীন, ফেমিনিস্ট, কমিউনিস্ট দেশগুলোর সমর্থক আমি!

লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন:
  • 35
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    35
    Shares

লেখাটি ১৫১ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.