উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবার নির্বাচিত করুন: প্রধানমন্ত্রী

PMউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পুনরায় নির্বাচিত হলে ক্ষমতায় এসে সকল অসমাপ্ত কাজ করে দেশকে ভিশন-২০২১ এর দিকে এগিয়ে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। তিন বলেন, ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে ২০২১ সালে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করা হবে।

বুধবার রংপুরের পীরগঞ্জে এক জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিরোধীদলীয় নেতার ছেলেরা বিদেশে টাকা পাচার করেছে। তা এখন ফিরিয়ে আনা হচ্ছে।

এসময় তিনি বলেন জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে কোরআনে আগুন দেয়ার ঘটনায় জামায়াত, বিএনপি ও হেফাজত কর্মীদের সমালোচনা বলেন, “কোরআন পুড়িয়ে এখন তারা আবার আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারা মসজিদে মসজিদে গিয়ে বলছে, দেশের সব ইমাম-মুয়াজ্জিনকে হত্যা করা হয়েছে।”

আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে এসব প্রচারণাকে মিথ্যা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘মসজিদে দাঁড়িয়ে যারা মিথ্যা বলে তারা মুসলিম নয়।’ মসজিদে যাদে মথ্যাচারকারীরা মিথ্যাচার না করতে পারে সে ব্যপারে ওলামা-মাশায়েখসহ সকল ধরর্মপ্রাণ মানুষকে সতর্ক থাকার ও আহ্বান জানান তিনি।

জনসভায় প্রধানমন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়। তাঁর জন্য দোয়া করতে তিনি পীরগঞ্জবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

জয় বলেন, আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় এসেছে দেশের উন্নতি হয়েছে। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগের বিকল্প কিছু নেই। এসময় আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে জয়ী করতে রংপুরবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

রংপুরের আঞ্চলিক ভাষায় জয় বলেন, ‘আপনাদের কথা দিলাম ‘মুই ফিরি আসিম’ (আমি ফিরে আসবো)।

তিনি বলেন, ‘উত্তরবঙ্গের কথা কখনও ভুলবো না। যেখানেই থাকি উত্তরবঙ্গের উন্নয়ন করতেই থাকবো। আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিন। নৌকায় মার্কায় ভোট দিলে উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে।’

বঙ্গবন্ধু দৌহিত্র জয় বলেন, ‘সারা পীরগঞ্জে বিদ্যুৎ আসবে। মঙ্গা ফিরে আসবে না। আর যদি আগামীতে বিএনপি ক্ষমতায় আসে তবে এখানকার মানুষের উন্নয়ন হবে না। বিদ্যুৎ আসবে না, মঙ্গা ফিরে আসবে।’

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় নিজের অবদানের কথা তুলে ধরে জয় বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য আমরা অনেক কাজ করছি। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে তথ্য সেবা কেন্দ্র চালু করা হয়েছে।’

জনসভা শেষে প্রধানমন্ত্রী কাঁচদহঘাটে করতোয়া নদীর ওপর নির্মিত ওয়াজেদ মিয়া সেতু, জেলা পরিষদ ডাকবাংলো এবং রংপুর নগরীতে নির্মিত আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস উদ্বোধন এবং কয়েকটি উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.