সড়ক দুর্ঘটনায় সাংসদ নিহত

golam-sobur-tuluউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: ফরিদপুরের ভাঙ্গায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন বরগুনা-২ আসনের সাংসদ গোলাম সবুর টুলু।

শুক্রবার বিকাল চারটার দিকে ভাঙ্গা উপজেলার চুমুর্দি এলাকায় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

একটি কভার্ড ভ্যানকে জায়গা করে দিতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি রাস্তার পাশে গাছের সাথে ধাক্কা খেলে গোলাম সবুর নিহত হন ও চার জন আরোহী আহত হয়।

আহতরা হলেন সাংসদের ছোট ভাই গোলাম শহীদ নীলু (৫২), ব্যক্তিগত সহকারী শহিদুল ইসলাম (৩২), পাথরঘাটার স্কুল শিক্ষক হারুন-আর রশিদ ও চালক সগির হোসেন (৩৫)।

আহতদের মধ্যে নীলু ও হারুনকে প্রথমে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে সেখান থেকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে এবং সগির ও শহীদুলকে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পরে রাতে তাদেরকেও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় জানিয়েছেন ভাঙ্গা থানার ওসি দাদন ফকির।

সাংসদ গোলাম সবুরের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী, ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

সন্ধ্যা সাতটার দিকে নিহত সাংসদের বড় ভাই গোলাম সিদ্দিকের কাছে তাঁর মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. ইমরান।

মরদেহ ঢাকায় আনার উদ্দেশ্যে ওই সময়েই তারা রওয়ানা দেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সংসদ সচিবালয়ের এক বিবৃতিতে বলে হয়, সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় শনিবার সকাল ১১টায় গোলাম সবুর টুলুর জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

ঘটনার ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বরগুনা-১ আসনের সাংসদ ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু সাংবাদিকদের জানান, সবুর তার নির্বাচনী এলাকা বেতাগী থেকে ঢাকা যাচ্ছিলেন।
তিনি বলেন, “গাড়িতে তিনি চালকের পাশেই বসা ছিলেন। তার ভাইসহ অন্যরা পেছনে ছিলেন বলে খবর পেয়েছি।”
গোলাম সবুর স্ত্রী ও তিন মেয়ে রেখে গেছেন।

তাঁর মৃত্যুতে বরগুনা প্রেসক্লাব ৩ দিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। বরগুনা প্রেসক্লাব সূত্রে জানা গেছে, শনিবার থেকে ৩ দিনব্যাপী কালো ব্যাজ ধারণ, প্রেসক্লাবের সামনে শোক বাণীসহ কালো ব্যানার টানানো এবং আগামী ২৯ জুলাই স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.