ভাত দে হারামজাদা, না হলে মানচিত্র খাবো

0

আসমা খুশবু:

ভাত দে হারামজাদা, না হলে মানচিত্র চিবিয়ে খাবো’
কবি রফিক আজাদের এই লেখার প্রেক্ষাপট ছিল ১৯৭৪ সালের দুর্ভিক্ষ।

দু’দিন আগে খবরে দেখছিলাম বাংলাদেশে দু’দিনের গ্যাপে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি বিশ টাকা। কোন সবজির কেজিই ৬০/৭০ টাকার নিচে নয়। আর চাল ৭০ টাকা কেজি। কাঁচা মরিচের কেজি ২৫০ টাকা। এমনকি ৪০০ টাকা পর্যন্তও শোনা গেছে।

বাংলাদেশে একজন সাধারণ আয়ের মানুষ দৈনিক দুই বেলা ভাত খাওয়ার ক্ষমতা রাখে কিনা সন্দেহ হয়। অন্যের বাড়িতে কাজ করে যাদের সংসার চলে, কিংবা রিক্সা চালিয়ে অথবা দিন মজুর, গার্মেন্টস কর্মী, আরও কত পেশার মানুষ আছে যাদের দিন শেষে খাবার খরচ কমিয়েই বেঁচে থাকতে হয়। দিনশেষে হয়তো একথালা ভাতের সাথে একটা কাঁচা মরিচ চিবিয়ে তৃপ্তির ঢেঁকুর তুলতো এই শ্রেণীর মানুষ আজ সেই মরিচ ও ক্রয় ক্ষমতার নাগালের বাইরে। লবন দিয়ে দু’মুঠো জোটে কারো কারো, তাও কতদিন জুটবে তারা জানে না।

এদেশে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণ করার জন্য কোন গভর্নিং বডি যদি থেকেও থাকে, তারা কি আসলে কাজ করে!?
জিনিসপত্রের দামের সাথে পাল্লা দিয়ে সাধারণ মানুষের আয় তো বাড়ছে না। এভাবে বাড়তে থাকলে কিছুদিন পর তিনবেলা খাবার জুটাতেই মানুষজন হিমশিম খাবে।
ভাতের অভাবে কণিকা, শেরপুরের বারো বছরের একটি মেয়ে ঘরের আড়ার সাথে ফাঁস লাগিয়ে আত্নহত্যা করেছে। এই দায় কার ওর বাবার নাকি এই রাষ্ট্রের? নাকি আমার, আপনার? এরপর ভাত খেতে গেলে কি ওই মেয়েটার কথা আপনার মনে পড়বে না? কি ভয়াবহ!

একটি রাষ্ট্র তার নিজের দেশের মানুষের দু’বেলা খাবারের দায়িত্ব নিতে পারে না, আর সে রাষ্ট্র কিনা দশ লাখ বহিরাগতদের খাবারের দায়িত্ব নিল!
আর কত কণিকার মৃত্যু হলে রাষ্ট্রের ঘুম ভাঙবে কে জানে! সকল শাখায় দুর্নীতি বন্ধ না করতে পারলে এই রাষ্ট্রের মুক্তি নেই। যেখানে শিশুদের জন্য বরাদ্ধ ইউনিসেফের কোটি কোটি টাকা খেয়ে শেষ করে ফেলে এই দুর্নীতিগ্রস্তরা সেখানে কীভাবে বন্ধ হবে ছোট ছোট দুর্নীতি কে জানে!
অবশ্য ফ্লাইওভারের উন্নয়নের চাপে কণিকাদের লাশ চাপা পড়ে যেতে পারে, কাজেই এ নিয়ে আর বাজে কথা না বলি।।

লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন:
  • 297
  •  
  •  
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    298
    Shares

লেখাটি ৫৭৮ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.