ধর্ষকামীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান

0

শিপ্রা বোস:

মাঝে মাঝে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত/প্রচারিত লেখা, কথোপকথন, বক্তব্য পেশ এবং তার কন্টেন্ট আমাকে ভাবায়; অনেক বক্তব্য দেখে আমি বিস্মিত হই, আহত হই, চিন্তিত হয়ে পড়ি।

তবে গত কয়েকদিনের রেভেলেশ্যান দেখে, বিশেষ করে সনাতন মালো ও মুনমুন শারমিন শামসকে লক্ষ্য করে যেসব বক্তব্য ফেসবুকে দেখেছি, তাতে আমি জাতির মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বিগ্ন। আমাদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা, মূল্যবোধ, মিডিয়াসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা নিয়ে দুশ্চিন্তিত।
ক্ষমতালিপ্সুরা তারুণ্যকে যেভাবে আত্মহননের পথে লেলিয়ে দিয়েছে তা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন।

মানসিক অসুস্থতা এবং ক্ষমতার উন্মত্ততা (এটাও একধরনের মানসিক বিকারগ্রস্ততারই বহিঃপ্রকাশ বটে) কোন পর্যায়ে পৌঁছালে কেউ কাউকে বা কারো পরিবারের সদস্যকে ধর্ষণ করবে বলে প্রকাশ্যে হুমকি দিতে পারে। কেউ নিজেকে ধর্ষক বলে জাহির করতে পারে এবং নিজের ধর্ষক পরিচয়ের মধ্যে বীরত্বের সন্ধান খুঁজে পায়!

কোন সংস্কৃতি, রাজনীতির ছত্রছায়ায় এসব মানুষ প্রতিপালিত হচ্ছে?

নারী-পুরুষ নির্বিশেষে, আত্মসম্মানের পরোয়া না করে, সোশ্যাল মিডিয়ায় দেশ ও জাতিকে সজাগ করে কেউ যখন কাউকে ধর্ষণের হুমকি দেবার মতো দুঃসাহস দেখায় সেটা জাতীয় সংকটের পূর্বাভাস হিসেবেই বিবেচনা করি।

পিতৃতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় নারীর শরীরকে রাজনৈতিক, সামাজিক ও ব্যক্তিগত ক্ষমতা দখল ও বজায় রাখার টুল হিসেবে ব্যবহার করা কোনো নতুন বাস্তবতা নয়. তাই আমি সনাতন ও মুনমুনের হুমকিদাতাদের আচরণ বুঝতে পারি, কিন্তু যেটা নতুন এবং ভয়াবহ সেটা হলো, এর প্রকাশ ও প্রকাশের ধরন এবং নতুন সামাজিকীকরণের প্রচেষ্টা।

আমি স্বাস্থ্য ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, এবং অনতিবিলম্বে শিক্ষা, আইন, তথ্য ও গণযোগাযোগ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের সঙ্গে যৌথভাবে এর প্রশমন ও প্রতিকারের আশু পদক্ষেপ নেয়ার জোর দাবি তুলছি।

আর যারা (অনির্বাচিত) সাংসদ বাপ্পির মতো তরুণ ছেলেদের লেলিয়ে দিয়ে অন্যদের শিক্ষা দিতে চায় তাদের বলছি, একা এবং উপযুক্ত স্থানে পেলে আপনাদের দেয়া শিক্ষার ব্যবহার আপনাদের ওপর চালাতেও ওই ছেলেরা পিছপা হবে না।

ধর্ষকামীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান।
আপনার সন্তান এবং আত্মীয়-বান্ধবদের ধর্ষক হয়ে ওঠা রুখে দাঁড়ান।
আপনার পরিবার ও সমাজকে নিরাপদ রাখুন।

লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখাটি ৩০২ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.