পুরুষের প্রেম-বিয়ে

0

ড. সীনা আক্তার:

প্রেম, ভালবাসায় ফরাসীদের সুনাম জগত বিখ্যাত। সেখানে প্রেমের বেলায় নারী-পুরুষের বয়স, বয়সের ব্যবধান তুচ্ছ বিষয়, তবে তা প্রায়ই একপেশে। মানে পুরুষ, বিশেষ করে অনেক বিত্তবান, ক্ষমতাবান পুরুষ তাদের চেয়ে অধিক কম বয়সী নারীর প্রতি অনুরাগী। এমনকি কোন কোন পুরুষ তাদের চেয়ে ১৫-২০ বা ততোধিক কম বয়সী নারীকে পাশে পেয়ে ধন্য হন।

কিন্তু এ প্রচলনে এবার কিছুটা ভারসাম্য এনেছেন ফ্রান্সের সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ। তিনি ১৭ বছর বয়সে প্রেমে পড়েন তাঁর চেয়ে অধিক বয়সী ব্রিজিত থনিওর। সেসময় ব্রিজিত ছিলেন তারই স্কুলে নাটকের শিক্ষক। প্রথমে ব্রিজিত বিষয়টিকে কৈশোরের আবেগ হিসাবে তেমন গুরুত্ব দেননি কিন্তু ইমানুয়েল ম্যাখোঁ ছিলেন আন্তরিক। তাই তিনি ব্রিজিতকে চ্যালেঞ্জ করেই বলেছিলেন, ”আমি তোমাকে একদিন বিয়ে করবো, দেখো”। বর্তমানে ৩৯ বছর বয়সী ইমানুয়েল ম্যাখোঁ এবং তাঁর ৬৪ বছর বয়সী স্ত্রী ব্রিজিত থনিও প্রেমময় ফরাসী সুবাস ছড়াচ্ছেন। ম্যাখোঁ নিজের রাজনৈতিক পেশায় ব্রিজিতের গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ এবং বিশেষ সহায়তা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করে বলেন, ”তাঁকে (ব্রিজিত) ছাড়া আমি আজকের আমি হতাম না”।

পশ্চিমা দেশে স্বামীর চেয়ে স্ত্রী’র বয়স বেশী একটা স্বাভাবিক ঘটনা। যেমন, বিলাতের হবু রাজা প্রিন্স চার্লস এবং তাঁর স্ত্রী কামিলা, পরবর্তী হবু রাজা প্রিন্স উইলিয়াম-কেট মিডিলটন। সাধারনের মধ্যেও এমন ঘটনা প্রায়ই দেখা যায়। যেমন গত বছর আমার এক বৃটিশ সহকর্মী অবসর নিলেন যার স্বামী তার চেয়ে পাঁচ বছরের ছোট। কিন্তু আমাদের দেশে এর উল্টা চিত্রই যেন আদর্শ।

ছোটবেলায় দেখতাম পরিচিত কেউ সম বয়সী নারীর সাথে প্রেম-বিয়ের ঘটনায় বড়রা সেই বউয়ের বয়স নিয়ে ফিস ফিস আলোচনা-সমালোচনা করতো। বর্তমানে শিক্ষিত পরিবারে সম বয়সী বিয়ে তেমন কোন ব্যাপার না। কিন্তু কদাচিৎ অধিক বয়সী নারীর সাথে কোন পুরুষের বিয়ের ঘটনা কু-আলোচনার বিষয়ে পরিণত হয়। আমাদের সমাজে আদর্শ বিয়ে মানে স্বামীর চেয়ের বউর বয়স কম হওয়া, ১০-১২ বছরের কম স্বাভাবিক হিসাবেই ধরা হয়। এক্ষেত্রে পুরুষ-নারী প্রায় সকলেই একাট্টা। ব্যতিক্রম ছাড়া কোন ছেলে অধিক বয়সী কোন নারীর সাথে প্রেমে জড়ালে দুজনেই বিয়ে সংসার থেকে নিরাপদ দূরে থাকে।

যাইহোক, পুরুষ তাদের চেয়ে অধিক বয়সী নারীর সাথে প্রেম-ভালবাসা-বিয়ে’র সম্পর্কে জড়ায় কেন? এর হয়তো অনেক ব্যাখ্যা আছে। অর্থনৈতিক দায়িত্ব ভাগাভাগি একটা গুরুত্বপূর্ণ কারণ। অনেক পুরুষ স্ত্রী বা সঙ্গীর মাঝে নিজ মায়ের স্নেহ-মমতা-যত্নের সন্ধান করে। আবার অনেকের কাছে সম পরিপক্কতা, সমভাবাপন্নতা এবং মানসিক নির্ভরতা সমভাবেই গুরুত্বপূর্ণ।

তবে এদের ক্ষেত্রে একটা কমন বিষয় লক্ষণীয় এবং তা হচ্ছে, এই পুরুষরা সমতূল্য বা তাদের চেয়ে অধিক মেধাবী নারীর প্রতি আকৃষ্ট হয়। যেমন, ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁ, আমাদের দেশে বদরুল আলম সৌদ-সুবর্ণা মুস্তাফা। অনেক বছর আগে আমার কর্মস্থলে আমাদের দেশের বিশিষ্ট লোক শিল্পী কাঙ্গালিনী সুফিয়াকে আমন্ত্রণ করেছিলাম, তখন তাঁর অনেক কম বয়সী স্বামীর সাথেও পরিচিত হয়েছিলাম, যিনি প্রেম করে সুফিয়াকে বিয়ে করেছেন। এই পুরুষরা অধিক বয়সী নারীর সাথে সম্পর্কের মধ্যে হয়তো এক ধরনের নির্ভরতা অনুভব করে।

পরস্পরের উন্নতি, বিকাশের জন্য ভালবাসার পাশাপাশি ঘরে-বাইরে সব বিষয়ে স্ত্রীর পরামর্শ, সমর্থন-সহযোগিতা যে গুরুত্বপূর্ণ তা সুদূরপ্রসারী দৃষ্টিসম্পন্ন, অধিক বিচক্ষণ পুরুষ হয়তো বিয়ের আগেই উপলদ্ধি করতে পারে, তাই তারা সম/উচ্চ বিচার বোধসম্পন্ন নারীর প্রতি আকৃষ্ট হয়। নারীর বয়স সেখানে তুচ্ছ বিষয়।  

আমাদের দেশে, অধিকাংশ পুরুষের ক্ষেত্রে বৈবাহিক সম্পর্ক মানে প্রথমত একজন যৌন সঙ্গী এবং স্বামী সেবা ও গৃহস্থালি কাজে পটু একজন গৃহকর্মী। এরপর বাচ্চা জন্মদানকারী এবং লালন-পালনকারী। প্রচলিত নিয়মে প্রায় সবক্ষেত্রে স্বামীর চেয়ে স্ত্রী বয়সে ছোট। বয়সের বিশাল ব্যবধানে দুজনের চিন্তাধারায় সম পরিপক্কতায় ঘাটতি থাকাটাই স্বাভাবিক।

দুজন মানুষের পরস্পরের অভিন্ন পছন্দ, মূল্যবোধ, বিচার-বিশ্লেষণবোধ ব্যতীত সাধারণত কোনো গভীর বন্ধন তৈরি হয় না। বিশেষ করে বিয়ে এবং দীর্ঘ মেয়াদে একসাথে বসবাসের জন্য যা অপরিহার্য। দুজন মানুষের মধ্যে শুধুমাত্র সংসারের চাল-ডাল-নুন নিয়ে কথাবার্তা কতোক্ষণ চলতে পারে?

দুজনের জানাশোনা, মনোজগতে ভারসাম্য না থাকলে জীবন একঘেয়ে হবার সম্ভাবনাই বেশী, বিশেষ করে অধিক পরিপক্ক পুরুষটির জন্য। স্বামী দ্বারা স্ত্রী নির্যাতনের পেছনে এর হয়তো প্রভাব আছে। আমার অনুমান সমবয়সী বিয়ের চেয়ে স্ত্রীর চেয়ে অধিক বয়সী স্বামী সম্পর্কগুলোতে নিপীড়ণ, নির্যাতন বেশী হয়। আগ্রহীরা এটা নিয়ে গবেষণা করে দেখতে পারেন।

লেখক: সমাজবিদ।

লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন:
  • 570
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    570
    Shares

লেখাটি ৪,০৬১ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.