শুভ জন্মদিন উইমেন চ্যাপ্টার

0

মোহছেনা ঝর্ণা:

প্রচণ্ড খরায় একটু পর পর চাতকী নয়নে আকাশের দিকে তাকাই। খুঁজে দেখি ঈশাণ কোনে মেঘ জমেছে কিনা। বৃষ্টির কোনো লক্ষণ আছে কিনা। ঝমঝমিয়ে যখন বৃষ্টি পড়ে, খরতাপের ক্লান্তি ভুলে মুহূর্তেই প্রশান্তিতে ডুবে যাই। আহ! কী শান্তি! কী শান্তি! প্রশান্তি মনেরও চাই। মনের সেই প্রশান্তি আয়োজনে উইমেন চ্যাপ্টার বৃষ্টির ভূমিকা পালন করে। যেন শ্রাবণের বারিধারা।

বঞ্চিত গোষ্ঠীর (বিশেষ করে মেয়েদের) একটা আশ্রয়ের নাম উইমেন চ্যাপ্টার। যখন লুকানো বেদনার ভারে আর কোনোভাবেই সামাল দেয়া যায় না নিজেকে তখন বেদনার ভার ভাগাভাগি করার জন্য মানুষ খোঁজে বিশ্বস্তজনকে। এখনকার নিষ্ঠুর সময়ে বিশ্বস্ত সংগী পাবে কোথায়? আর তখনি হাতছানি দেয় নির্ভরযোগ্য বন্ধু হিসেবে উইমেন চ্যাপ্টার।

সাহসী মানুষের কণ্ঠস্বর উইমেন চ্যাপ্টার। প্রথাভাংগা মানুষের দুর্বার হন্টন গতিতে, কন্ঠের সাহসী উচ্চারণে, কলমের জোরালো শব্দ আর বাক্য প্রনয়ণে কখনো কখনো সুবিধাভোগীদের আঁতে ঘা লেগে যায়। তখন বিকট শব্দে বিজাতীয় ভাষায় ঘোঁত ঘোঁত শোনা যায় আশেপাশে। ব্যাপার না!

উইমেন চ্যাপ্টারের সাথে পরিচয় আমার, খুব বেশি সময়ের নয়। আবার খুব অল্প সময়েরও নয়। এখন আমি নিজেকে উইমেন চ্যাপ্টার পরিবারের সদস্যই মনে করি। এই পরিবারের নেপথ্যের প্রধান মানুষটির প্রতি ভীষণ ভালোবাসা অনুভব করি। যিনি বরাবরই বঞ্চিত মানুষটির পাশে গিয়ে দাঁড়াতে চেয়েছেন এবং দাঁড়াচ্ছেন। এজন্য কত ধরনের প্রোপাগান্ডার মুখোমুখি যে তাকে হতে হচ্ছে তার কিঞ্চিত জানলেই আমি মুষড়ে পড়ি। অথচ এ মানুষটা একা হাতে সামলে যাচ্ছেন সবকিছু। জানি অবশ্য, তিনি আসলে একা নন। এতগুলো মানুষের ভালোবাসা, শুভকামনা যার সাথে আছে তিনি কি করে একা হন।
অনেক ভালোবাসা উইমেন চ্যাপ্টার এবং প্রিয় সুপ্রীতি Supriti Dhar ‘দির জন্য। আমাদের উইমেন চ্যাপ্টার এভাবেই এগিয়ে যাবে সামনের দিকে সমস্ত প্রতিকূলতাকে পিছনে ফেলে জন্মদিনে এই শুভকামনা।

লেখাটি ৪২৫ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

RFL
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.