নিজের মনটাই যখন আটকে আছে

ফৌজিয়া আফরোজ:

ইদানিং আমার কেন জানি খুব সফল ত্রিশ /৩০ হতে ইচ্ছে করে কোনো সঙ্গী ছাড়া। কিন্তু কোথায় জানি একটা ভয় লাগে, তাই সেই ভয়ের উৎস খোঁজা শুরু করলাম।

আমার মতো শিক্ষিত মধ্যবিত্ত কিছুটা শ্রেণী বিচ্যুত হওয়া মেয়ের জন্য ভয়ের কারণটা অর্থনৈতিক নয়। তাহলে কী? পারিবারিক? কারণ হিসাবে সেটাকেও খুব একটা যুক্তিযুক্ত কিংবা সবল মনে হচ্ছে না। তাহলে কারণটা কি কোনোভাবে সামাজিক? কিন্তু এই ব্যস্ত নগরায়ন এর মধ্যে সমাজের সাথেও যে খুব একটা যোগাযোগ আছে তাও কিন্তু না।

ফৌজিয়া আফরোজ

তাহলে এই দোটানার উৎস কী? নিজেই কেমন জানি একটা গোলকধাঁধার মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছিলাম। উৎসটা তাহলে কি কোনো এক ধরনের নিরাপত্তাহীনতা কিংবা সঙ্গী না পাবার ভয় বা আর একটু স্বাধীন হবার ইচ্ছা অন্য এক পরিসরে গিয়ে? না আমি নিজেই নিজেকে সঙ্গীহীন সফল কিংবা বিফল ত্রিশ হিসেবে মেনে নিতে রাজি না এখনো! 

শেষ প্রশ্নটাতে এসে কেন জানি আটকে গেলাম। সত্যিই কি প্রস্তুত আমি, না আমিও দিন শেষে অন্য কারো উপর নির্ভর করতে চাই, বা নিজের উপার্জনটা শখের জন্য আর দায়িত্বের জন্য অন্য কারো কাঁধ চাই। কবে জানি কোথায় একটা লেখা পড়েছিলাম, লেখিকার মতে –

“A gentle man would allow her girl to open her wings and fly high and say! Look I am watching you, don’t worry, if you fall, I will be there to catch you.”

লেখাটা পড়ে মনের মধ্যে একটা খটকা তৈরি হয়েছিল কেন অন্য কারো অনুমতি লাগবে আমার ডানা মেলার জন্য? কিংবা কেনই বা আমি পড়ে গেলে তাকে থাকতে হবে আমাকে ধরার জন্য? আমি যদি উড়ার যোগ্যতা রাখি এবং সিদ্ধান্ত নিতে পারি, তাহলে পড়ে গেলে নিজেকে সামলানোর যোগ্যতাটুকুও অর্জন করাও দায়িত্বের মধ্যেই পড়ে। কেন আমি অন্যের অপেক্ষায় থাকবো?

নিজেকে কেমন জানি স্বাধীন- পরাধীন বলে মনে হচ্ছে এবং আমার ভয়ের উৎস তাহলে হয়তো আমার নিজের মন, যে কিনা এখনো অন্য কারো উপর নির্ভর করতে চায়। তাই  বলে আমি বলছি না যে নির্ভরতা কোনো খারাপ জিনিস। যে কোনো সম্পর্কে নির্ভরতা থাকবে, এটাই স্বাভাবিক, কিন্তু এই  নির্ভরতাটুকুর মাত্রা কী কিংবা কিসের বিনিময়ে এই নির্ভরতা, সেটা মনে হয় একটু ভাবা দরকার। অর্থনৈতিক কিংবা সামাজিক স্বাধীনতাটা না হয় অন্যের সাথে লড়াই করে অর্জন করা যাবে, কিন্তু এই লড়াইটা কে কার সাথে লড়বে?

“আমার হাত বান্ধিবি, পা বান্ধিবি, 
মন বান্ধিবি কেমনে…
চোখ বান্ধিবি ,মুখ বান্ধিবি,
পরান বান্ধিবি কেমনে……..”

কিন্তু মজার বিষয় হলো, বাকি সব বন্ধন থেকে কিছুটা মুক্তি মিললেও, মন জানি কোথায় আটকে গেছে।

স্বাধীন হোক মন ও মস্তিস্ক।

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.