“মৃত্যু তখনই হয়, যখন স্বপ্নগুলোকে মেরে ফেলা হয়”

দিনা ফেরদৌস:

কোনো মেয়ে যখন আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়, তখনই আমি বুঝে নেই যে, তার বেঁচে থাকার সব পথ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। মরে যাওয়া সমাধান না হলেও বেঁচে থাকার জন্য যে সমাধানের প্রয়োজন, আমরা তা দিতে ব্যর্থ। এই কথার অর্থ এই নয় যে, যার বেঁচে থাকার সব পথ বন্ধ হয়ে যাবে, সে বেঁচে থাকার আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে।
 
দিনা ফেরদৌস

যুক্তি, উপদেশ চাইলে অনেক কিছুই দাঁড় করানো যায়, প্রশ্ন হচ্ছে সমাধান হচ্ছে কি? যে গেলো সে গেলোই। যার যুদ্ধ করে বেঁচে থাকার সাহস আছে, সে প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করছে। কিন্তু যে যুদ্ধ করে ক্লান্ত, তবুও বাঁচার স্বপ্ন দেখে, আর প্রতিদিন নিজের চোখের সামনে নিজের স্বপ্নগুলোকে অন্যের হাতে খুন হতে দেখে, তাদেরকে দেবার মতো কোন উপদেশ বা সাহস আমার মতো দুর্বলের নেই।

 
যখনই মেয়েদের নিয়ে কিছু লিখতে যাই তখন কেউ কেউ বলেন; এ আর নতুন কী? জানি, আমি নতুন কিছু লিখি না। কারণ যাপিত জীবনের সবকিছুই বার বার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। সেই নারী নির্যাতন, শিশু নির্যাতন, আত্মহত্যা। ঘুরে ফিরে বার বার একই জিনিস হচ্ছে।
মরে গেলে বলছি বোকামি, কিন্তু বেঁচে থাকা অবস্থায় বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিতে পারছি না। তাদের যন্ত্রণার খবরগুলো আমাদের কানে এসে পৌঁছায় না। মেয়েদের ভুলের কোনো মাফ নেই। সে নিজের দোষে হোক বা অন্য কারো দোষেই হউক। প্রেম করলেও মরবে, প্রেম প্রত্যাখ্যান করলেও মরবে, প্রেম করে বিশ্বাস করলেও মরবে। বিয়ে করলে মরবে স্বামীর হাতে, বিয়ে না করলে মরবে সমাজের হাতে। ডিভোর্স হলে মারবে পরিবার ও সমাজ মিলে। বিধবা হলে মারবে ধর্ম ও সমাজ মিলে। তার মধ্যে দূর থেকে যাদের দেখে বলি বেশ ভালোই আছেন, তাদের ভিতরের খবর আমরা কেউই রাখি না।

মেয়েদের ধাপে ধাপে মরার জন্য বিভিন্ন কৌশল খুব যত্ন করে আমাদের সমাজ তৈরি করে রেখেছে। তার দেহের আকৃতির  জন্য সে দায়ী, পোশাকের জন্য দায়ী, স্কুল-কলেজে রাস্তা দিয়ে যেতে হয় এজন্য দায়ী। স্বপ্ন দেখতে চায় এজন্য সে দায়ী।

আজ যাদের আত্মহত্যার খবর পাই, আমি জানি, তারও বহু আগে তাদের হত্যা করা হয়েছে ;কখনো ধর্মের নামে, কখনো সমাজের নামে, কখনো বিশ্বাসের নামে ভরসা দিয়ে, কখনো পরিবার বা বন্ধুত্বের নামে ভালোবাসার লোভ দেখিয়ে। তাদের আত্মার মৃত্যু হয়েছে তখনই,যখন তাদের স্বপ্নগুলোর মৃত্যু হয়েছে।

সেইসব মৃতদের জন্য যতটা না আফসোস করি, তার চেয়েও বেশি আফসোস করি তাদের বেঁচে থাকার জায়গাটাকে কেড়ে নেয়ার জন্য। তাদের স্বপ্নগুলোকে মেরে ফেলার জন্য।

যতোদিন না আমরা নিজেদের স্বপ্নের পাশাপাশি অন্যদের স্বপ্নের প্রতি যত্নবান হবো, ততোদিন পর্যন্ত কারো মুক্তি নাই।
শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.