‘ধর্ষক’ সাইফুল আসলে কে?

গ্রামবাসীর ভাষ্যমতে, সাইফুল জমিরহাট এলাকায় একজন ত্রাস হিসেবে পরিচিত। সে ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি হিসেবে এলাকায় তার দাপট ছিল প্রচুর। এলাকার মানুষ তাকে ‘দানব সাইফুল’ হিসেবে চেনে।

সাইফুলের দুই ভাই ছাইদুল ও শফিউল বলেন, সাইফুল একজন খারাপ প্রকৃতির মানুষ। তার সাথে কারোরই বনিবনা নেই। তার প্রথম স্ত্রী নার্গিস বেগম চার সন্তানকে নিয়ে সাইফুলের সংসার ছেড়ে চলে গেছেন। নারী নির্যাতন মামলায় সে দেড় মাসের মতো হাজতও খেটেছে।

rapistবর্তমানে সে তার মেয়ের শাশুড়িকে বিয়ে করেছে বলে এলাকায় গুজব রয়েছে। এলাকার ইউপি সদস্য আহসান হাবিব বলেন, সাইফুল সব সময় মদ,গাঁজায় ডুবে থাকতো, সেইসাথে ফেনসিডিল ব্যবসা করতো। তার দাপটের কারণে গ্রামবাসী মুখ খুলতো না।

স্থানীয় একজন সাংবাদিক জানিয়েছেন, ধর্ষণের শিকার শিশুটির খালা অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে বলেছেন, ‘ধর্ষণকারী সাইফুলের ফাঁসি না হলে আমরা শিশুটিকে নিয়ে দুই বোন আত্মহত্যা করবো’।

এদিকে আজ বুধবার দুপুরে জমির হাট সড়কে এই দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করে এলাকার শিশুসহ নানা বয়সী নারী-পুরুষ।

এ ঘটনায় দিনাজপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ্জামান আশরাফ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরফদার মাহমুদুর রহমান, ওসি মাহমুদুল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলে অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তির আশ্বাস দিয়েছেন।

সাইফুল বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে। তার রিমান্ড চেয়ে আদেশের শুনানি হবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার।

শেয়ার করুন:
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.