DSU: অনলাইনে যৌনবিকৃতদের আখড়া!!!

মারজিয়া প্রভা: গ্রুপের পুরো নাম Desperately Seeking Uncensoredমানুষ ওখানে ডেসপারেট হয়ে Uncensored খুঁজে বেড়ায়। এরা সেই মানুষ, যারা রক্ত ছবিতে পরীমনির চুম্বন দৃশ্য দেখে হায় হায় করে। এরা সেই মানুষ যারা রাস্তাঘাটে ওত পেতে থাকে কখন মেয়ের ক্লিভেজ একটু দেখা যায়, ব্রা’এর ফিতা বের হয়ে যায়, ওড়না সরে যায়। তাহলেই টুপাটুপ এরা ছবি তুলে গ্রুপে দিবে। যেখানে কামানো যাবে হাজার হাজার লাইক।

dsu-2এই গ্রুপের সদস্য সংখ্যা কত? আন্দাজ করেন? ১ লাখ ২২ হাজার। আমার  গ্রুপের একগাদা বন্ধু এই গ্রুপের মেম্বার। ছেলেমেয়ে সবাই। এই গ্রুপেই একমাত্র আমি দেখেছি কোন মেয়ের ক্লিভেজের ছবিতে আরেক মেয়েকে রসিকতা করতে। ডজন ডজন মেয়ে কমেন্টে করেছিল, ছেলের ক্লিভেজের ছবি তুলতে পারাকে সাধুবাদ জানিয়ে। যদি তারা ফেইক আইডি না হয়ে থাকে, তাহলে তারা আমার গালে ঠাস করে চড় মারলো।

এই গ্রুপ আমাকে শিখিয়েছে, ছেলেই কেবল মেয়েকে ধর্ষণ করে না। মেয়েরাও করে।

বাস থেকে মেয়ের ক্লিভেজের ছবিটা পোস্টের পর সেখানে একগাদা মেয়ের কমেন্ট দেখে আমি ঘেন্নায় লিভ করেছি অনেকদিন হলো। আমি শান্তিতে ছিলাম। গত পরশু এক বন্ধু বলল, ডিএসইউ’তে এক পোস্ট খুব ভাইরাল হইছে। এক ছেলেমেয়ের ভিডিও। আমি পাগলের মতো সেই গ্রুপে ইন করতে চাইলাম, গ্রুপ অফ। ক্লোজড গ্রুপের ভিতরে চলছে পাশবিক উল্লাস।

একটা ছেলে আর মেয়ে চার দেয়ালে কী করবে সেটা সেই ছেলেমেয়েই ভালো বুঝবে। তাদের ভিডিও ছড়ানো যে সাইবার ক্রাইম সেটা তো নতুন না! সবচেয়ে মজার বিষয় কি জানেন? এই গ্রুপে সিআইডি, আইন নিয়ে বকবক করা লোকও আছে। আইনটা খুব ভালোভাবে জেনেও তারা একবিন্দু প্রতিবাদ করে না। এদের অনেকের কাছে আমি আমার সাইবার ক্রাইম নিয়ে গিয়েছিলাম। এখন ঘেন্না হচ্ছে। রক্ষকই ভক্ষক! এরাই নারী অধিকারের কথা বলে?

14445517_1304474016250536_591354924_nএই গ্রুপের একাধিক এডমিন। নতুন নতুন এডমিন। একদম প্রথমদিককার একজন এডমিনের প্রোফাইলে লেখা, “সে খালি মেয়েদের রিকু একসেপ্ট করে। লুইচ্চা বললে তার কিছু যায়ে আসে না”।  আপাতত দৃষ্টিতে এই কথা মজা করে হাজার ছেলে বললেও, এরাই সাইবার ধর্ষকে রুপান্তরিত হয়। যেমনটা হয়েছে ডিএসইউ এর ছেলেরা।

৮ মিনিটের ভিডিও ভাইরাল হবার পরে শুনেছি ডিএমসি থেকে ভিডিওর ছেলেমেয়েটিকে তাড়ানো হয়েছে। এই খবরের সত্যতা আমার জানা নেই। তবে যা বুঝি, ডিএমসি এর অথোরিটি এটা করবে না। কারণ যৌনতা যে স্বাভাবিক বিষয় তা ডিএমসি এর অথোরিটি ছাড়া ভালো কেউ বুঝবে না।

আজ সকালে স্ক্রিনশট পেলাম, ৮ মিনিট না, এখন শুরু হয়েছে ৬ মিনিটের ভিডিও। এরা এভাবেই ভিডিওগুলোর নাম দেয়! তারপর যে মেয়ের ভিডিও ছড়ায়, কোথাও তার সঙ্গে দেখা হলে ছবি তুলে বলে, “অত মিনিটের ভিডিও’র মেয়েটির সঙ্গে দেখা হলো”।

কোন মেয়ের শার্ট উঁচু হয়ে থাকলে তা নিয়ে জঘন্য সব মন্তব্য করে ছেলেমেয়ে সবাই। আমি বুঝি না, একজন মেয়ে হয়ে মেয়ের প্রতি এই সাইবার নির্যাতন সহ্য করে কেমন করে!

পর্ণ সাইটে হাজার অভিনেতা অভিনেত্রী অভিনয় করেছেন। তাদের ভিডিও দেখলেও আপনার কামবাসনা মেটার কথা। তবুও কেন, একজন সাধারণ নিরপরাধ মেয়ের ক্লিভেজ, বুক, পেট কিংবা প্রিয় মানুষের সঙ্গে কাটানোর ভিডিও ছড়িয়ে আপনি কী মজা পান? কিংবা যারা দেখছেন তারাও কি এই অপরাধের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট না? যারা শেয়ারের পর শেয়ার করেছেন, উৎসাহ দিয়েছেন পোস্টদাতাকে। তারাও কি এই সাইবার ক্রাইমের অন্তর্গত না?

অনেক আইনজীবী ভাইয়া-আপুরা আছেন, তারা আরও ভালো বলতে পারবেন কতটা নোংরা এই সাইবার ক্রাইম! কিভাবে একজন মানুষের জীবন ধ্বংস করে দেয় এই ক্রাইম।

এই এতো সবকিছু অনেককে বোঝানোর পরেও গ্রুপ লিভ করতে চায় না অনেকে। তাদের ভাষ্যমতে, “ওরা খারাপ। কিন্তু আমি গ্রুপ লিভ করবো না”। আমি কাউকে জোর করতে পারি না। কিন্তু এটাতো বুঝাতে পারি, গ্রুপ লিভ করে আপনি দর্শক কমাতে পারেন। অনুৎসাহী করতে পারেন পোস্টদাতাকে। সবচেয়ে বড় কথা নিজে তো সৎ থাকতে পারেন!

আসলেই তো, কেন বিনে পয়সায় ফানটা নষ্ট করবে কেউ?

ব্যাপারটা যে ফান নয়, সেটা কেউই বুঝে উঠে না! সবকিছু নিয়ে ফান হয় না। আজ রাস্তা দিয়ে যে মেয়ের বুকের ছবি দেখে ফান পাচ্ছেন, কাল ওই ছবিতে থাকতে পারে আপনার মা, বোন, প্রেমিকা, বন্ধু, স্ত্রী।

সাইবার ক্রাইম কাউকে ছাড়ে না। আজ প্রতিবাদ করছেন না? সেদিন আপনার পাশেও কেউ থাকবে না।

আমি ভাবি বিকৃতমনার এই আখড়াতে ভিড়েছে হয়ত ১৬ থেকে আঠারো বছরের কিশোররা। যাদের চুপিচুপি ধর্ষক বানাচ্ছে এই গ্রুপটা। আর আপনি গ্রুপটিকে “ফান” হিসেবে নেওয়া মানুষটা! জন্ম দিচ্ছেন আগামী দিনের ধর্ষককে। ওই ধর্ষক যে আপনার বা আপনার কাছের নারীর উপর ঝাঁপিয়ে পড়বে না তার গ্যারান্টি আছে?

গ্রুপে আছেন, মজা নিচ্ছেন, সাইবার ক্রাইমকে সায় দিচ্ছেন। এবার চোখ বন্ধ করে ভাবুন, আপনার কাছের নারীটা নিরাপদ তো এই গ্রুপের কাছ থেকে?

আমরা কি প্রতিবাদ করব না? আইনি ব্যবস্থা নেবো না?

শেয়ার করুন:
  • 223
  •  
  •  
  •  
  •  
    223
    Shares

I support and appreciate your work in this article. Police must take action against DSU. This group is a platform for pervert some of the comments here above proves that. I heard they got a website as well no wonder even that would be full of pornography. DSUer may give tons of justification but deep inside you know what is right and what is wrong, God is the witness of everything we do! There can be no justification for spreading nudity!!!

ভাই না বুঝে কেন কমেন্ট করেন, লেখিকা বলেছেন…… যৌনতা স্বাভাবিক বিষয় এইটা dsu অথোরিটির কাছে। dsu কে খোঁচা দিয়ে কথাটা বলেছেন।
একটু গালি দিতে জানতে পারলেই কেউ কেউ smart মনে করে এইটা চরম অসভ্যতা?

jotto sob baler alap. ami boltesi na DSU kharap, boltesi na DSU valo.

Of course rasta ghat e ekta meyer awkward obosthar photo tule ta share daya crime. ei dhoroner pic share deya uchit na. But ekta meye rasta ghat e jhulaiya berabe iccha kore sei khetre amar kono say nai. karon ek class er meye ache jara doby display te khub e interested. polapain hotel restaurant e giye chumachumi kore selfie tule oi sob upload dey. ogulo DSU te dile karo kono somossa thakar kotha na. karon ora nijerai upload dise. But eitao thik j kono scandal video jodi chele or meyer icchar biruddhe kora hoy, jodi video ta hidden hoy then ota share kora crime. jodi chele meye biye er agei SEX kore ta video kore tahole oita leak hole amar tader proti kono sympathy nai. Coz chodon sobai dite pare keu 1 min keu 8 min keu 26 min, oita video korar kichu nai.

সেক্স করার সময় ভিডিও কতটা জুরুরি? চারদেয়াল এর ভিতর করতেছেন করেন,তাই বলে ওইটা ভিডিও করে আবার অনলাইন আপলোড করা!! ওদের ভিডিও টাতো আর নিজে নিজে আপলোড হয়নাই। উনাদের ভিডিওটা ওরা নিজেরাই আপলোড দিছে। উনারা ভিডিও করলো আপলোড দিলো, তাহলে ভিউয়ার এর দোষ কোথায়? যে ভিডিও নিয়ে এত কথা ঔ ভিডিও তে দুই জনেরই সমান কৃতীত্ত ছিল। ছেলে বা মেয়ে আমাদের সবার শালীনতা বজায় রাখা উচিত।

আপনি এতটা খারাপ ভাষা কিভাবে ইউজ করলেন? আপনার মানসিকতা কত নিচু তা কি সবাইকে জানাতে এই লিখলেন? ছি ছি । একটা ভালো গ্রুপ কে এভাবে নষ্ট করার পায়তারা করছেন কিসের জন্য? DSU অনলাইন এ সব থেকে এক্টিভ এবং ফ্রী গ্রুপ। এই গ্রুপ থেকে অনেকে অনেক উপকার পায়। আর নগ্নতা কে ট্রল এ না নিতে চান, তাহলে তো আপনি মানুষ এর মধ্যে পড়লেন না! মিরাক্কেল দেখেছেন? অনেক জনপ্রিয় তাইনা? কি ধরনের এডাল্ট জোক করে সেটা তো পরিবার নিয়ে দেখেন। DSU তেমনি জোক করে থাকে! আরো কিছু বলব? নোবেল আর তিশার একটি নাটক আছে, নাম : আনপ্রেডিক্টেবল। নাটকের কাহিনী এই DSU কে নিয়েই। নোবেল তিশা কে DSU থেকেই খুজে পায়। নোবেল ও লিংক চায়। আপনার ভিউ বদলান। নয়ত DSU এর মান হানি করবেন না। এটাও একটা ক্রাইম!

if u wanna solve a system then u must need to stay in it. coz from outside u can just give lecture like that. why u didn’t tryed to raise ur voice when u left the group.
i reall appreciate u.
but like u most of us flew away from the duty.
if your country got corrupted will u go to America/Russia nd then try to solve the problem. its not duty is just a show.

note:- no group can make rapists.
if it could do u must be one of them.
being a rapist depends only on ones mind, ones attitude.
dont blame the majority what’s come to light

সুন্দর লিখেছেন আপু। সাইবার ক্রাইম যেমন একটা অপরাধ, বিবাহ বহির্ভূত সেক্স কেন একই মাত্রার একটা অপরাধ হবে না? একটু চিন্তা করলেই বুঝতে পারবেন আসলে সমস্যার সূত্রপাত ওই বিবাহ বহির্ভূত সেক্স এবং সেটা ভিডিও করে অনলাইনে ছেড়ে দেওয়ার ফলে। আপনার লেখায় কেন জানি বিবাহ বহির্ভূত সেক্সকে বৈধ মনে করার একটা চেষ্টা দেখতে পাই।বিবাহ বহির্ভূত সেক্স যারা করে তাদের একটা বিশাল অংশ ধরা পড়ে যাবার পর একে অপরকে বিয়ে করেন না এই দিকটাও চিন্তা করবেন।এরা যখন অন্য দুইজন নিরপরাধ মানুষকে বিয়ে করেন, সেই মানুসগুলি কি প্রতারণার শিকার হয় না। তাদের কি দোষ, তারা কেন তাদের সঙ্গির পাপের বোঝা বইবে? বিবাহ বহির্ভূত সেক্স যারা করে তারা কেবলমাত্র ঝামেলাবিহিন ভাবে মজাই করতে চায়। দুঃখ জনকভাবে আপনি ভিডিও শেয়ারকারিদের অপরাধকে বড় করে দেখছেন কিন্তু যারা বিবাহ বহির্ভূত সেক্স করছেন তাদেরকে নির্দোষ মনে করছেন। দুইজনই তো অপরাধী হওয়ার কথা। আপু একটা প্রশ্নের উত্তর দিন, আপনার জীবনসঙ্গীর যদি এমন কোন অতীত কর্মকাণ্ডের কথা যদি আপনি জানতেন তাকে কি আপনি বিশসাস বা গ্রহণ করতেন?আমার মন এত বিশাল নয় আমি করতে পারতাম না দুঃখিত। কলেজ- বিশ্ববিদ্যালয় এর সদ্য তরুণ ছেলে-মেয়েরা যেন এমন কিছু না করে সেই ব্যাপারটাও আশা করি অন্য কোন লেখায় লিখবেন।

Desperately Seeking Uncensored কি জনতা নাম দেখেই ভড়কে গেলেন?? ভাবলেন আনসেন্সরড আর যৌনউত্তজনায় ভরপুর গ্রুপটা? যেখানে শুধু মেয়েদের ক্লিভেজ নিয়ে মেয়ের উচু বক্ষনিয়ে আলোচনা হয় আর শুধু লিংক শেয়ার হয়?
কিছুদিন আগে মেডিকেল এ পড়ুয়া দু শিক্ষার্থীর ভিডিও ফাসঁ কি DSU এর মেম্বার রা করেছে ? এই গ্রুপের মেম্বাররা ওদের বাসায় সিসি ক্যামেরা লাগিয়ে বসে ছিলো, নাকি ক্যামেরাম্যান এর দায়িত্বে ছিলো?
ওরা নিজেদের ভিডিও নিজেরাই করেছে, হয়তো যখন দুজন কাছাকাছি না থাকবে এ ভিডিও দেখে দুজন ই ফিলিংস নিবে, বুজলাম তাদের নিজেদের ব্যাপার, আচ্ছা তা অন্যের হাতে যায় কিভাবে? নাকি কোনো ডিসু মেম্বার ওদের ভিডিও টা নিয়ে নিছে গোফনে, ওরা নিজেরাই অথবা নিজেদের ই কোনো আপনজন তা এক্সপোজড করছে, তাও তো ডিসু গ্রুপে তো করে নাই, করেছে অন্য একটা সাইটে, তাহলে গ্রুপটার দোষ কিভাবে আসলো, ফাসঁ হওয়াতে তো অন্যরা যারা এসব নোংরামিতে আছে তারা ও সাবধান হয়ে গেলো,

হে জনতা এখানে শুধু লিংক নিয়ে পোস্ট হয় না এখানে নিজের মায়ের সাহায্যে নিয়ে ধর্ষিত মেয়েকে একটা সুখের পৃথিবী তৈরি করে দিতে সাহায্য করা হয়
হে জনতা এই গ্রুপে জেনে নিন এই গ্রুপে গরীব ছোট বাচ্ছাদের ঈদের আনন্দ উপভোগ করার জন্য নতুন জামা উপহার দেওয়া হয়,
হে জনতা আরো জেনে রাখুন এই গ্রুপে ব্লাডসিকিং নিয়ে পোস্ট করা হলে অল্প সময়ে তা ম্যানেজ হয়ে যায়,
হে চুশীল জনতা জেনে রাখুন এই গ্রুপের সাহায্যে রিক্সা চালিয়ে পড়ালেখা করা ছাত্র একটা জব পেয়ে তার চোখ দিয়ে আনন্দাশ্রু ফেলে।
হে জনতা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের ভ্যাট দেওয়া বন্ধ করতে এই গ্রুপের কতটুকু অবদান আপনি কি তা জানেন?
হে জনতা জুনায়েদ কে চিহ্নিত করতে এই গ্রুপ ই প্রথমে এগিয়ে এসেছে
এখানে মধ্যরাতে কোনো মেয়ে ধর্ষিত হওয়ার আশঙ্কা নিয়ে পোস্টদিলে পুলিশ নিয়ে ওই এলাকায় গিয়ে মেয়ে রক্ষা করার আশায় এগিয়ে যায় সত্য মিথ্যা বিবেচনা না করে শুধু মানিবক দিকটা বিবেচনা করে

আপু, আপনার লেখার একটা ট্রিক্স বুঝলাম যে অনেক কথা লিখেছেন আর তাতে সবাই লেখাটায় তালগোল পাকিয়ে ফেলেছে এবং আপনিও আসলে কোন পয়েন্টাকে হাইলাইট করতে চেয়েছেন লেখার মাঝে গুলিয়ে ফেলেছেন।ব্যাপার না,কথা হচ্ছে যৌনতা স্বাভাবিক বিষয় এটা একদম সত্য কিন্তু এই কথাকে পুঁজি করে দেশের সংস্কৃতিকে আঘাত করতে পারেন না। এদেশে যৌন শিক্ষা, ওপেন সেক্স এগুলো ট্যাবু। তাই অন্তত এদেশে বসে এমন বুলি না আওড়ানোই ভালো। ছেলেমেয়ে দুইজন চারদেয়ালে যা ইচ্ছা করলো সেটা তাদের ব্যাপার কিন্তু দুইজনের সম্মতিতে ভিডিও বানানোর পরও নারীবাদী কথা আপনার এই দীর্ঘ সুন্দর লেখাটাকে মৃতপ্রায় বানিয়ে ফেলেছে। আচ্ছা আপু, ভিডিও করাটা খুব জরুরী? হোক না সেটা বিয়ের পর- ভিডিও কি আপনিও করবেন- স্মৃতি ধরে রাখতে! -_-

আচ্ছা প্রভা, মডেল নোভা কিংবা আরও ভাইরাল স্ক্যান্ডাল গুলা কি DSU দ্বারা প্রকাশ হয়েছিলো? :v আর এমনভাবে কথা গুলো লেখা যেন স্ক্যান্ডাল গুলা DSU member রা ভিক্টিমদের মোবাইল থেকে চুরি করে শেয়ার দেয় গ্রুপ এ? এরপর সারাদেশ বাংলালিংক রেটে পায়? প্রত্যেকটা স্ক্যান্ডাল এ ওয়াটারমারক থাকে ‘This video was uploaded at xvideos.com’ যেটা দেশের সবচেয়ে বেশি ভিজিটেড ফ্রি পর্ণ সাইট। যাদের স্ক্যান্ডাল বের হচ্ছে সবাই স্টুডেন্ট and সেই through তে এক কান আরেক কান করে করে লিঙ্কটা এমনেই ছড়ায় যায়। আর DSU তে সরাসরি পর্ণ শেয়ার বা uncensored ছবি ভিডিও শেয়ার করলেই তাকে ব্যান দেওয়া হয় এবং রুলস এ কঠোরভাবে বলা আছে স্ক্যান্ডাললিঙ্ক আপ ডিলে ব্যান করা হবে। ১২২০০০ মেম্বারদের মধ্যে শত শত মানুষ জেনে না জেনে স্ক্যান্ডাল আপ দেয় এবং ব্যান ও খায়। কিন্তু ততক্ষন এ যা হওয়ার হয়ে গেছে। তাই ঢালাওভাবে পুরো গ্রুপটাকে দোষদেওয়ার পক্ষে আমি না। Admin দের মধ্যে মেয়েও আছে যাকে আমি পারসোনালি চিনি, কোন মেয়ের সাথে আজেবাজে কথা বললেও সাথে সাথে ব্যান দেওয়া হয়। আর আপনি যদি বলতে পারেন বিয়ে বহির্ভূত যৌনতা স্বাভাবিক তাহলে গ্রুপ এ মুক্ত আলোচনার বিপক্ষে কেন? হ্যাঁ মানি তারা মনে মনে পশুটাকে পেলে পুষে বড় করছে কিন্তু at least most of them are virgins although they are sexually freak. ছোটবেলা থেকে আমরা দেখেই আসছি হাজারো স্ক্যান্ডাল, তো সেক্স করার সময় মেয়ের আপত্তি ছাড়াই ভিডিও হচ্ছে বলে দেখা গেছে, ক্লাস ৭-৮ এর মেয়েরাও বুঝে ভিডিও করলে একদিন প্রকাশ পাওয়ার চান্স আসেই। তাই একচোখা হয়ে মেয়েদের বাঁচানো বন্ধ করুন। যদি Gender Equality তে believe করে থাকেন তাহলে ছেলেগুলাকে কেন ডিফেন্ড করলেন না? You’re biased and this post of yours doesn’t make any sense. Thank you!

যৌনতা স্বাভাবিক যৌনতা স্বাভাবিক বলে ম্যাৎকার না করে অবৈধ যৌন চর্চা বন্ধ করার উপদেশ দেন তাহলে কাজ হতে পারে। কারন অবৈধ যৌনচর্চা নেইতো কোন ভিডিও নেই!! যদি এটা না পারেন তাহলে আপনিও লাইনে খাড়ায়া লিংক নেন।

আত্মসম্মানবোধ সবচেয়ে বড় বিষয় আপনি যদি আপনার সম্মান না বুঝেন কেউ আপনাকে সেটা দিবেনা
বর্তমানে শুধুমাএ ছেলে মেয়েরা অপরাধী না সাথে অবিভাবকরাও কারন অবিভাবকদের ছেলেমেদের প্রতি অতিরিক্ত উদাসিনতার কারনে এসব ঘটনার জন্ম হচ্ছে
বিয়ে হচ্ছে সামাজিক বন্ধন উপরওয়ালার বিধান বিয়ে ছাড়া এভাবে অবাধে মিলামিশা হারাম ইসলাম কখনও সমর্থন করেনা এসব ভিড়িও তো দুরে থাক একটা ছেলে একটা মেয়ে (কোন বৈধ সম্পক ছাড়া) গোপনে কথা বলাও হারাম এইধরনের কাজ দুজনের সম্মতিতে হয় তাই দুইজনই সমান অপরাধী আর এইটা ভিডিও তারাই করছে ইন্টারনেটে তারাই দিছে তাই এখানে কারে দোষ দিয়ে লাভ নেই সৃটিকর্তা সবাইকে সঠিক জ্ঞান দান করুক

এহ, আইছে গেন দিতে, বিবাহ না করে হাজার ছেলের সাথে বেভিচার করলেও তারা নির্দোষ , ভিডিও করলেও নির্দোষ, আর সাধারন মানুষ দেখলেই যত দোষ সাধারন মানুষের ?

সব কিছুই ঠিক আছে তবে মেডিকেলের কাপলদের ভিডিওর ব্যাপারে একটা কথা থেকে যায়। আপনি নিজেই বললেন পর্ন সাইট থেকে ভিডিও দেখে কাম বাসনা পুর্ন করতে। আপনি না জেনে থাকলে জেনে রাখুন সে ওই ভিডিওটাও সবাই পর্ন সাইট থেকে ডাউনলোড করছে বা দেখছে।ভিডিও যখন পর্ন সাইটের কন্টেন্ট হয়ে গেছে সেইটা ভাইরাল হইতেই পারে। সেক্স সিম্পল ব্যাপার মানলাম, চার দেয়ালের মধ্যেই সিমাবদ্ধ রাখুন। ডকুমেন্টারী বানানোর কি দরকার যে আপনি সেক্স করছেন। এইটা নিজের বোকামির মাশুল দেয়া ছাড়া কিছুই মনে করিনা আমি।

কিচ্ছু করার নাই আফা.. #জেনারেশন_ফ্যাক্ট

DSU গ্রুপের ভালো দিক ও আছে খারাপ দিক ও আছে..

এই যেমন আপনার লেখা কেউ ডিসুতে শেয়ার দিলে ২ দিন পর আপনিও সেলিব্রেটি হয়ে যাবেন.. এটা ভালো দিক…

আর খারাপ দিকের কথা তো আপনি উপরেই ব্যাক্ষ্যা দিছেন..

Another social justice warrior with trash ideology and unbridled hypocrisy. Learn to organise points properly and construct an argument. DMC is a medical institution so they’d understand ‘sex is normal’ ? How funny is that? Bet you never read cyber crime laws in full yet yelling about it here. If you had proper knowledge, your response to the event would be different.

চারদেয়ালের মাঝের স্বাধীনতা, ব্যক্তিস্বাধীনতার সাথে নিজেদের একান্ত ব্যক্তিগত মুহূর্তের ভিডিও বানিয়ে তা পাবলিক করা অথবা এক্সিডেন্টালি পাবলিক হওয়ার মত কোনো সুযোগ করে দেয়ার কতটা সঙ্গতিপূর্ণ ?

আবালের মতো কথা বলেন কেন?
আপনি কি বলতে চাচ্ছেন পাবলিক তাদের একান্ত সময়ে তাদের পাসে বসে থেকে ভিডিও করছিল
আর পরে তা ভাইরাল করেছে?

আরে ম্যাডাম আপনার এটা জানা দরকার যে ভিডিও টি
তারা নিজেরাই ধারন করেছিল এবং তারাই কোনো এক Porn সাইটে আপলোড করে।

এই লেখা লেইখা নিজেরে খুব বাল মনে করতাছো তাই না??

তুমি যে আসলেই একটা আবালচোদা হেইডা ভালা মতই প্রমাণ দিলা।। নিজেরে আবার শিক্ষিত দাবী কর?? ভোক্সদ ইবনে আচোদার দল

Cyber Crime Authority er kaache ekta Mail korsilam ekta group er against e massh khanek aage. apnar ei post pore mone holo kisu korse kina dekha jaak. Group search kore dekhi ekhono bohal tobiote colcchey Group ti.. Etai Bangladesh… Era abar App banaia procharer jonno amader Mobile e Govt. SMS dei jaate amra shocheton Hoi… Baal er Desh Bangladesh(don’t mean it personally) :/ 🙁 :@

ওমা ! এতো দেখি চোরের মা’র বড় গলা !!!
নিজেরাই নিজেদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও করলো, নিজেরাই তা পর্ণ সাইটে আপলোড করলো, আর দোষী হোলও DSU এর পোলাপান না !!! এটা কিরকম যুক্তি !!!!
যেহেতু ডিএমসি তে পড়ে তার মানে তো মাথায় অবশ্যই ঘিলু থাকার কথা। আমার তো মনে হয় উনারা নিজেদের পপুলার বানানোর জন্যই ভিডিওটা করে আপলোড দিছে। যদি নিজ মনোবাসনা পূরণের জন্যই অন্তরঙ্গ কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হতো তাহলে ভিডিও করার কিই বা দরকার ছিলও আপনারাই বলেন।

আর হ্যাঁ, DSU তে কেবল খারাপ বিষয় নিয়েই পোস্ট দেয়া হয় না। এখানে ভালো খারাপ উভয়ই আছে। সুতরাং এই গ্রুপের পিছনে না লেগে ওইসব পর্ণ সাইট বন্ধ করার জন্য পোস্ট দেন। আর সাইবার ক্রাইম কাকে বলে এটার Definition টা শিখে এসে তারপর ভবিষ্যতে এমনসব পোস্ট দিয়েন…

বেশি কিছু বলবো না।।।গ্রুপটা যেমন খারাপ তেমন ভাল।।DSU তে কেও কোন হেল্প পোস্ট দিয়ে সে আনেক হেল্প পাই।।তাছার আরএকটা কথা ভিডিও করলে দোষ নাই লিংক নিলেই দোষ।।।যত দোষ নন্দ ঘোষ

লিংক নিয়ে নিশ্চয়ই খাটের নিচে রেখে দেন না? ভিডিওটা নামিয়ে ১০০ বার করে দেখে ২০০ বার হাত মেরে যে সমানে বাল খাউজাতে থাকেন, সেইটা লেখেন নাই কেন?? শুধু “লিংক নেই” বললে নিজের খাছরামি কম প্রকাশ পাবে দেখে এভাবেই বলতে হবে?

আপনি যে একটা সেটা কি আপনি বুঝেন?
‘একজন মেয়ে হয়ে মেয়ের প্রতি এই সাইবার নির্যাতন সহ্য করে কেমন করে!’
কারণ, সব মেয়ে আপনার মতো ফেমিনাজি না। এই গরূপে মেয়েদের নিয়ে যেমন ‘অশ্লীল’ ফান করা হয়, ছেলেদের নিয়েও করা হয়, সেটা কি আপনার চোখে পড়বে?

ছেলেদের সাইড নেয়া আমার কাজ না! প্রাপ্ত বয়স্ক ছেলে মেয়ে একসাথে থাকলে, বন্ধু হিসেবে থাকলে তারা অনেক কিছু নিয়েই ‘ফান’ করে, সেই জিনিস কি আপনার পক্ষে অবসার্ভ করা পসিবল হয়েছে? শুনেছি আপনি একজন ‘এরোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার’, অতএব কোনো ছেলের সাথে পড়া লেখার সুযোগ হয়েছে, সেখানে আপনি এই ‘ফান’ করার প্রত্যক্ষ করেছেন কি?

ডি এস ইউ এরকমই একটা ভার্চুয়াল প্লাটফর্ম, আমি এই গ্রূপের একজন মেম্বার হিসেবে দেখেছি সেখানে ‘অশ্লীল’ ফান করা হলেও খুব কম ক্ষেত্রেই তা পার্সোনাল এটাকে গড়ায়!
ছেলে মেয়ের মধ্যে যৌনতা বিষয়ক আলোচনা খুব স্বাভাবিক একটা বিষয়, আপনি তো একজন মুক্তমনা! তাহলে তো এই বিষয়টা আপনার খুব স্বাভাবিক ভাবে নেয়া উচিত! নাকি নিজে একজন ফেমিনাজি, কোনো ছেলের ভালোবাসা/প্রেম পেতে ব্যর্থ হয়ে চাইছেন যাতে অন্য মেয়েরাও সেটা না করতে পারে! এইটা কি সেই শেয়ালের গল্পের মতো হয়ে গেলো না ?

আপনার কোনো বন্ধু অথবা বান্ধবী অথবা আপনার জীবনসঙ্গীর ভিডিও যদি বের হয় তবে অবশ্যই লিংক দিয়ে আমাদের কৃতার্থ করবেন. অন্যের টা আর কত দেখবেন? নিজে তো এবার কিছু ভিডিও বানান? অন্যেরটা দেইখা তো বড় বড় জ্ঞানের কথা ঝাড়েন. নিজের মা বোনের ভিডিও বাইর হলে তখন নিশ্চয়ই সেটারও লিংক চাইতেন ডিএসইউ তে.

দারুণ লিখেছেন আপা। আমি আশেপাশে জুনিয়রদের কাছে প্রথম এই গ্রুপের কথা শুনি। আর শুনি কি ধরনের পোস্ট দেওয়া হয়। আমি জাস্ট এটাই বুঝিনা এসবের মানে কি! কেউ রেস্টুরেন্টে প্রেমিকা, বোন, বান্ধবী নিয়ে খেতেও যেতে পারবেনা এইসব বিকৃতমনাদের জন্য। ছবি তুলে নাকি পোস্ট করে দেয়। আমি জাস্ট এটাই ভাবি যে, মেয়েটা তো আমার বোনও হতে পারে। আমার বোন তার বন্ধুদের সাথে বেড়াতে যায় খেতে যায় এখানেওখানে। এসব ডেইলি রেগুলার অ্যাক্ট থেকে এরা কি ধরনের বিকৃত আনন্দ পায় সেটা আমার মাথায় আসেনা। এসব শুনে কখনো ওই গ্রুপে ইন করা হয়ে উঠেনি আর। এসব শুনলে অসহায় লাগে মাঝেমাঝে নিজেকে, নিজের কাছের মানুষদের ।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.