সেনা অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত মুরসি এখন গৃহবন্দী

general sisi
সেনাপ্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি

উইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক (০৪ জুলাই): তাহরির স্কয়ারের টানা চারদিনের বিক্ষোভের জের ধরে এক সেনা অভ্যুত্থানের মধ্যদিয়ে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছেন মিশরের নির্বাচিত প্রথম প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসি।

সেনাপ্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি মিশরের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত এক ভাষণের মাধ্যমে মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করার এই ঘোষণা দিয়েছেন।

ভাষণে সেনাপ্রধান বলেন, প্রেসিডেন্ট মুরসি আর ক্ষমতায় নেই।

সেই সাথে সংবিধান স্থগিতের ঘোষণাও দেয় দেশটির সেনাপ্রধান। তিনি বলেন, একটি নতুন নির্বাচন হওয়া পর্যন্ত সংবিধান স্থগিত থাকবে এবং এসময় পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রধানের দায়িত্ব পালন করবেন দেশটির সাংবিধানিক আদালতের প্রধান বিচারপতি।

মুরসি সহ মুসলিম ব্রাদারহুডের অন্যান্য নেতাদের দেশত্যাগের উপর নিষধাজ্ঞাও জারি করা হয়েছে বলে ভাষণে সেনাপ্রধান বলেছেন।

মিশরে সরকার ও বিরোধীদলের মধ্যকার সমস্যার কোন রাজনৈতিক সমাধান না হওয়ায় সেনা অভ্যুত্থান হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই।

সেনাপ্রধানের ভাষণের পর তাহরির স্কয়ারের বিক্ষোভকারীরা উল্লাসে ফেটে পড়ে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, সেখানে অসংখ্য জনতা মুহুর্মুহু আতঁশবাজি জ্বালিয়ে স্লোগানে স্লোগানে বিজয়োল্লাস করছে।

এদিকে মুসলিম ব্রাদারহুডের একজন জ্যেষ্ঠ নেতার বরাত দিয়ে আজ বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা এপি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয় ক্ষমতাচ্যুত করার পর মিসরের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে একটি সেনা স্থাপনায় আটকে রাখা হয়েছে। মুরসির শীর্ষ সহযোগীরাও তাঁর সঙ্গে আটক রয়েছেন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.