ফারাজ, নিব্রাস এবং আমাদের বেড়ে ওঠা

ফারজানা নীলা: সারাদেশে নাকি দুশ’রও বেশি তরুণ ছেলে গায়েব, মানে বাসায় জানে না তারা কোথায়? কী নিরাবেগ হয়ে যাচ্ছি আমরা! সন্তান নিরুদ্দেশ, অথচ পরিবারের “তেমন” কোনো মাথাব্যথা  নেই।  এখন যখন ‘জঙ্গি’ ‘জঙ্গি’ বলে সবাই  দৌড়াচ্ছে, তখন যেন একটু  হুশ জ্ঞান ফিরলো এসব পরিবারের।

Ibrahim-Ashraf-Zunaidঅবশ্য এরই মধ্যে যা হবার হয়ে গেছে, যে ছেলে পালিয়ে জঙ্গি হয়েছে, সে আর ফিরে আসবে না, সৎ পথে ফিরবে না। এক ঐশী ছিল, যে ধীরে ধীরে নেশার জগতে হারিয়ে শেষপর্যন্ত নিজ বাবা-মা’কে হত্যা করলো। তাকে ফাঁসির রায় দিল, তাতে ঐশী মরে যাবে, কিন্তু তার মতো আরও দশ জন ঐশী যে প্রতিনিয়ত হারিয়ে যাচ্ছে নেশার আড়ালে, তাদের দিকে কে তাকাবে?

সন্তান দিন দিন মাদকাসক্ত হয়ে শেষপর্যন্ত অমানুষের কাতারে চলে গেল, বাবা-মা টেরও পেলো না, এর দায় কি বাবা-মা’র কাঁধে পড়ে না?
নিব্রাসের মতো আরও নাম না জানা কত তরুণ আজ জঙ্গি হবার পথে, তাদের বাবা-মা কি শীত নিদ্রায় ছিল? খুব সহজ একটি যুক্তি মুখে মুখে চলছে এখন, “ছেলের আচার আচরণে কোনো পরিবর্তন দেখেনি, কীভাবে বুঝবে সে বিপথে যাচ্ছে”?
বেশ, ধরে নিলাম বোঝার কোনো উপায় ছিল না, সে নিত্যদিনের কাজ ঠিকমতো করতো, এরপর হুট করে উধাও হয়ে গেছে! আচ্ছা, নিব্রাস যেন বিপথে না যায় সেজন্য কি তার বাবা-মা কিছু করেছিল?

Faraz 2আমরা যারা নিব্রাস হইনি, যারা প্রতিটি খারাপের বিরুদ্ধে রাস্তায় নামি, আন্দোলন করি, নিজ রক্ত দিয়ে অন্যের জীবন বাঁচাই; তাদের সাথে নিব্রাসদের পার্থক্য কী? আমাদেরও আচার-আচরণ নিব্রাসের মত, আমাদেরও বিশ্ববিদ্যালয় আছে, বন্ধু আছে, বিদেশ ভ্রমণ আছে, আড্ডাবাজি আছে। তাহলে কী এমন আমাদের আছে, যা নিব্রাসদের নেই?  

তাদের দেশপ্রেম নেই, সাহিত্যপ্রেম নেই, মননে আধুনিকতা-প্রগতিশীলতার ছায়া নেই। আমাদের মাঝেও যে এসেছে সেগুলোর জন্য সামান্য অবদান অবশ্যই বাবা-মা’দের দিতে হয়।
বাবা- মা যদি জীবনধারণের জন্য সম্ভাব্য সকল কিছু দিয়ে একটি গল্প-উপন্যাসের বই না ধরিয়ে দেয়; সে সন্তান সাহিত্যমনা হবে কীভাবে? যাবতীয় সকল ধর্মীয় উৎসব খুব ঘটা করে সন্তানকে নিয়ে পালন করেন, শবেবরাতের রাতে তাগাদা দেন নামাজ পড়তে, কখনও কি তাগাদা দিয়েছেন শহীদ মিনারে যেতে?

বইয়ে লেখা ছিল  ১৯৭১ এ বাংলাদেশে যুদ্ধ হয়, কখনও কি বাবা-মা হয়ে নিজ সন্তানকে নিয়ে যুদ্ধের গল্প করেন? সবগুলোর উত্তর হয়তো ‘না’ হবে। কিন্তু  উত্তর হ্যাঁ হয় তখনই, যখন আমাদের মতো তরুণরা বিপথে যায় না।

আমাদের যুদ্ধ সম্পর্কে জ্ঞান প্রথম পাই ঘর থেকে, শহীদ মিনারে গিয়ে ফুল দিতে হয়; শিখিয়েছে পরিবার, ধর্ম পালন করা না করা যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার; শিখিয়েছে পরিবার।

Gulshan 9বাকিটা নিজেদের তাগিদে পরবর্তীতে জেনেছি-বুঝেছি-পালন করেছি। কিন্তু ভিত তৈরি করে দিয়েছিল পরিবার। হাত খরচের জন্য চাহিদার অধিক টাকা কোনোদিন পরিবার দেয়নি, বরং সবসময় যত কম পারে দিয়েছে। কিন্তু নিব্রাসদের  আলাদা সাপ্লিমেন্টারি ক্রেডিট কার্ড থাকে। যার নিজের কোনও আয় নেই তার কেন ক্রেডিট কার্ড থাকবে? তার কেন আই-ফোনের সবচেয়ে লেটেস্ট ভার্সন থাকবে? থাকবে কারণ বাবা-মা দেয়, থাকবে কারণ সন্তানের এসব না থাকলে বাবা-মা’দের নাক কাটা যায়!
সন্তানকে সন্তানের মতো বড় হয়ে উঠতে দিলে আজ হয়তো নিব্রাসদের এমন পরিণতি হতো না, ওরা মানুষ হতে পারতো। নিজেদের টাকা-পয়সা-আভিজাত্যের তোড়ে সন্তানকে সীমাহীন স্বেচ্ছাচারিতায় ফেলে দিলে সে খুব সহজে কারো টার্গেট হয়ে যাবে, যাকে আমরা ‘ব্রেন ওয়াশ’ বলছি।

অথচ দেখুন, একই আভিজাত্যের মধ্যে কিন্তু ফারাজও বড় হয়েছিল। কিন্তু সে তো বিপথে যায়নি। ফারাজের ভাই বলেছিল, তার মা তাদের শিক্ষা দিয়েছে সব সময় মেয়েদের পাশে থাকতে, বিপদে তাদের ছেড়ে না দিতে, তাদের রক্ষা করতে। সেই শিক্ষার পূর্ণ প্রকাশ দেখেছি, যখন জীবন রক্ষা করার সুযোগ থাকার পরও ফারাজ তার বন্ধুদের ছেড়ে আসতে চায়নি।
ফারাজের মানসিকতার বিকাশে পরিবার ভূমিকা রেখেছিল। ঠিক যেভাবে নিব্রাসদের গড়ে উঠার পিছনে পরিবারের ভূমিকা আছে।

এখন এতো নিখোঁজ সংবাদ চারিদিকে, তবুও কি কেউ সচেতন হচ্ছে? হয়তো সাময়িকভাবে হচ্ছে, টুকটাক নজর রাখছেন সন্তানের প্রতি। কিন্তু যদি তাকে শিশুকাল থেকে প্রগতিশীলতা-সাহিত্য-দেশপ্রেম সম্পর্কে কোনো ধারণা দেওয়া না হয়, তবে কীভাবে এখন সে হুট করে পরিবর্তন হয়ে যাবে?

নিজের তাগিদে? তাগিদটা  অনুভব করার জন্য কাউকে একটু  ধাক্কা দিতে হয়, কে দিচ্ছে তাকে? কেউ না, বরং কুমন্ত্রণা দেওয়ার লোকের অভাব নেই। সে প্রমাণ আমরা চাক্ষুষ দেখছি।
হায় হায় করছি বাসায় টিভি দেখে, পত্রিকা পড়ে। কিন্তু সন্তানের কাছে গিয়ে তাকে কি বোঝাচ্ছি জঙ্গিবাদ কী, মৌলবাদ কী, ধর্ম কী, আধুনিকতা কী, প্রগতিশীলতা কী? হায় হায় করতে করতে হয়তো একদিন টিভিতে আপনার ছেলের নামও ভেসে উঠবে জঙ্গি তালিকায়। কারণ আপনি শুধু তাকে দামি দামি জিনিস দিয়েছেন, টাকার শ্রাদ্ধ করেছেন তার পিছনে। কিন্তু মানসিক বিকাশের জন্য একবিন্দুও কিছু খরচ করেননি।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.