হ্যাঁ, আমার পিরিয়ড চলে

শারমিন শামস্: রমজান মাস আসা উপলক্ষে পিরিয়ড সংক্রান্ত কয়েকটা পোস্ট দেখলাম ফেসবুকে। কয়েকটি পোস্ট অনেকেই শেয়ার করেছেন। রমজান আসলেই আমাদের দেশের পুরুষরা মেয়েদের অপদস্থ করতে প্রশ্ন করে, ‘রোজা রাখছো? নামাজ পড়ছো?’

তো এই নিয়ে মেয়েরা বিব্রত হয়, বিরক্ত হয় এবং এখন তারা ক্ষুব্ধ। তাই পুরুষদের আগাম সতর্ক করতে মেয়েরা এবার নোটিশ দিয়ে দিচ্ছে। আমার প্রশ্ন হচ্ছে, মেয়েরা তোমরা বিব্রত হও ক্যান? তোমার শরীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়াটি স্বাভাবিক- এটা যদি তোমরা জেনেই থাকো, তবে কয়েকটা পুরুষ তোমারে কী প্রশ্ন করলো না করলো তা নিয়ে লজ্জায় গুটিশুটি মেরে মরে যাও ক্যান?

Moonmoon 2
শারমিন শামস্

তেনারা যদি প্রশ্ন করে, তুমি সিনা টান করে বলবা, আমার পিরিয়ড হইসে। ব্যস, মিটে গেল। এটা নিয়ে নাকি কান্নার কারণ কী?

যেই দেশের অধিকাংশ পুরুষ তোমার বুকের দিকে, পেটের দিকে তাকায়া কথা কয়, তাদের কাছ থেকে তোমরা কী এক্সপেক্ট করো? এরা এ ধরনের প্রশ্ন করবে এটাই তো এদের জন্য স্বাভাবিক। এরা নারীর শরীরকে কেবলই একটা শরীর, একটা মাংসের টুকরা বলে জেনে আসছে ছোটকাল থেকে, এরা নারী শরীর নিয়া অসুস্থ চিন্তা আর অশিক্ষা নিয়া বড় হইছে। তাই এরা পিরিয়ড নিয়া দগদগে যৌনতা ছড়াতে চাইবে, এই তো ওদের নিয়ম। তুমি ক্যান বাঁকা হয়ে যাও মেয়ে?

এদের মুখে লাথি মারতে তোমারে হতে হবে সপ্রতিভ। ওদের নোংরা উদ্দেশ্য ধুলায় মিশায়ে দিতে হবে। তাই সহজভাবে উত্তর দিতে হবে তোমাকে। তুমি এখন এইটা নিয়া কষ্ট পাইয়া পোস্ট দিতেছো, তোমার ধারণা, যারা এইগুলি বলে, তারা তোমার পোস্ট পাইয়া সিধা হয়ে যাবে? জী না আপা। এরা আরো মজা পাইতেসে।

তুমি তাদের নিয়া এতো ভাবো, তুমি বিব্রত হও, এইসব জেনে তারা পুলকিত। ওরা তো তাই চায়। তোমারে বিব্রত করে, কষ্ট দিয়ে ওরা যে বিকৃত আনন্দ পায়, এই পোস্ট দিয়া সেই আনন্দে বাড়তি মাত্রা যোগ করতেছো তুমি।

অতএব প্রশ্ন আসলে কইবা, যা সত্য। মাটিতে মিশে যাওয়ার দরকার নাই। বেশি রাগ করারও প্রয়োজন নাই। সরাসরি চোখের দিকে তাকায়া কইবা, পিরিয়ড চলে। তিনদিন পর আশা করতেছি রাখুম। সে যদি কয়, তোমার তিনদিন চলে? কইবা, হ্যাঁ, আমার তিনদিন চলে। শেষ। মামলা খতম। বুঝলা?

শোনো মেয়ে, তুমি মাথা নিচু করে হাঁটো বলেই ওরা তোমারে ল্যাং মারে। মাথা সিধা করে হাঁটা দাও। আর ওদের কাম ওদের করতে দাও। কতদিন? একদিন ওরাও ক্লান্ত হবে। পিরিয়ড নিয়া ট্যাবু আগে তোমার মন থেকে হটাও। পিরিয়ড, ওড়না, ব্রা’র ফিতা, পাতলা জামা, ব্রেস্ট ফিডিং এইসব নিয়া মেয়েদের ঢং আর মরমে মরার দিন যেদিন শেষ হবে, সেইদিন ওইসব বিকৃত পুরুষরাও সিধা হয়ে যাবে। কসম।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.