লোভ আর ধর্ম যখন একাকার

কাকলী তালুকদার: দুই বন্ধু রেল লাইন ধরে হাঁটছে। পায়ের কাছে পলিথিনে মুড়ানো কিছু একটা পড়ে আছে। দুজনেই আগ্রহ ভরে ব্যাগ খুলে দেখতে গেল। একবন্ধু গন্ধ পেয়ে বলল দোস্ত এইটা মানুষের হাগু! আরেক বন্ধু বলল আমার বিশ্বাস হয়না! আঙুলে তোলে নাকের কাছে নেয়, মাথা নেড়ে আবার বলে এইটা কি হাগু আমার বিশ্বাস হয় না! আরে বেটা গন্ধে বুঝস না এইটা হাগু! এবার আঙ্গুল জিহ্বায় ঠেকিয়ে সেই বন্ধু নিশ্চিত হলো এইটা আসলেই মানুষের হাগু!

আমাদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী নাজিমুদ্দিন সামাদের সকল লেখা ভাল করে জিহ্বার স্বাদ নিয়ে সার্টিফাই করবেন তাঁর মৃত্যু সঠিক হয়েছে!

তা আপনারা এত বড় বড় ধার্মিক থাকতে রাষ্ট্র এত বেসামাল হয় কেমন করে? কোটি কোটি টাকার লুটপাট, বিধর্মীদের বিতাড়িত, ধর্ষণ,হত্যা, সাধারণ মানুষকে গুলি করে নির্বিচারে হত্যা এইগুলো কি ধার্মিকদের কাজ? কেন ধর্মকে আজ অস্ত্র বানাচ্ছেন আপনারা? যদি সত্যিই স্রষ্টার সৃষ্টিকে বিশ্বাস করেন তবে তো আপনার হৃদয় হবে কোমল, ভালবাসায় পরিপূর্ণ আর ক্ষমাশীল, সেই সাথে ন্যায় বিচারক!

বর্তমানে সরকার কী ভূমিকা পালন করছে? প্রতিটি অন্যায়কারীকে মদদ যোগাচ্ছে! বাঁশখালীর সাধারণ মানুষকে হত্যা করা হলো, মামলা দেয়া হলো তাদের নামে। কেন? কাদের রক্ষা করছেন আপনারা?

Banshkhali 2
বাঁশখালীতে পুলিশের গুলিতে নিহত স্বজনের আহাজারি: ছবিটি সংগৃহীত

লোভ খুব খারাপ বিষয়, ” লোভে পাপ পাপে মৃত্যু” কথাটি এখন সবার জন্য প্রযোজ্য নয়। বিবেকবান মানুষ তার লোভের অনুশোচনায়ই একদিন ধ্বংস হয়ে যায়, কিন্তু যারা বিবেকহীন তাদের পাপ বোধ আর পূণ্যের অনুশোচনা থাকে না।

ভদ্র কাপড় পরলেই যেমন মনুষ্যত্বের প্রমাণ মেলে না, তেমনি হৃদয়ে সৌন্দর্য ধারণ না করে মানুষ হওয়া যায় না!  ক্ষমতার লোভ আঁকড়ে থাকলে অন্তত বেহেস্তবাসী বা স্বর্গবাসী হওয়া সম্ভব হয় না।

ধর্ম ধর্ম করে স্রষ্টার সৃষ্টিকে আপনারাই ধ্বংস করছেন মুহূর্তের মধ্যে! আপনারা ধার্মিক! আচ্ছা বলেন তো, যে আপনাকে পিস্তল ঠেকিয়ে সম্মান চাইবে তাকে সম্মান করবেন? নাকি যে আপনাকে ভালোবাসায় সম্মান জানিয়ে সম্মান আশা করবে তাকে সম্মান করবেন বা তার নেতৃত্ব মেনে নিবেন?

লোভে আপনি সকল কিছু ধ্বংস করে দিচ্ছেন! জেনে, বুঝে অন্যায়কে এগিয়ে নিচ্ছেন! ন্যায় বিচারকে মুছে দিচ্ছেন রাষ্ট্র থেকে! আমাদের পরবর্তী জেনারেশন ন্যায় শব্দটির সাথে আর পরিচিত হবে না! ওরা জানবে না কোনদিন অন্যায় আর ন্যায়ের পার্থক্য, কারন আপনি আমি পূর্বসূরীরা ন্যায় শব্দটির মৃত্যুকে নিশ্চিত করে চলে যাচ্ছি পৃথিবী বা আমাদের দেশ থেকে!

তনু, সাগর-রুনী, নিজামুদ্দীনের মৃত্যুকে রাষ্ট্র বৈধতা দিয়ে দেয়! বিদ্যুতের নামে ব্যক্তিগত লালসার শিকার হয় বাঁশখালীর মতো সাধারণ মানুষ! লোভ আর ধর্ম আজ একাকার!

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.