সেদিন তোমাদের কেউ বাঁচাতে আসবে না

Societyনাহিদ শামস্‌ ইমু: যখন একাত্তর আসেনি, যখন পাকিস্তানি শয়তানের কালো থাবা পুরোপুরি গ্রাস করেনি এই ভূ-খণ্ড, আজকের অধিকাংশ বাঙালির মত সেদিনও সবাই বড্ড নির্লিপ্ত থেকেছিল। কর্মজীবী মধ্যবয়সী লোকটি নিয়মিত অফিস করেছিল, গৃহিণীটি রোজকার মতই উনুনে হাঁড়ি চাপিয়েছিল, পল্লী-বালিকারা স্নানের পর রোদে চুল শুকিয়েছিল, এ দেশের তরুণ-তরুণীরা চিঠির পাতায় নিরন্তর বুনে গিয়েছিলো ঘর বাঁধার স্বপ্ন।

ওরা হয়তো কেউই দেশ-দশ-রাজনীতি ইত্যাদি নিয়ে খুব একটা ভাবেনি, হয়তো ভাববার প্রয়োজনই বোধ করেনি। অতঃপর একদিন একাত্তর এলো…

মধ্যবয়সী লোকটির ঘরের দরজা ভেঙ্গে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ঢুকে পড়ল অতর্কিতে। ওরা মধ্যবয়সী লোকটিকে সপরিবারে হত্যা করল। ওরা পল্লী-বালিকাদের ধরে নিয়ে গেলো বাংকারে, বানিয়ে ফেললো যৌনদাসী। ওরা প্রেমিক তরুণটির হাত-পা বেঁধে গুলি করে পুঁতে ফেললো গণকবরে, ওরা প্রেমিকাটির ওপর নগ্ন হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়লো, গণধর্ষণ শেষে জবাই করে ফেলে গেলো। ওদের চিঠি’র পাতার একেকটি স্বপ্ন উড়ে গিয়েছিলো শান্তির ঠাণ্ডা আগুনের কালবোশেখী ঝড়ে…

আজ এই ভূ-খণ্ডে ফের সেই শয়তানের কালো থাবা পড়তে যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠনের মদদে রক্তপিপাসুরা হয়ে উঠেছে অপ্রতিরোধ্য। এবং আজ যথারীতি তোমরা অনেকেই বড্ড উদাসীন। কারণ এই ঝড়ের কবলে তোমরা এখনও পড়োনি। আজ তোমরা খুব হাসছো, খেলছো, গাইছো, সেলফি তুলছো, ফুল-পাখি-লতা পাতা নিয়ে লিখে যাচ্ছো।

তোমরা ভাবছো ‘ব্লগার মরেছে, নাস্তিক মরেছে, আমাদের তাতে কী?’

কিন্তু যেদিন ওদের উদ্দেশ্য সফল হবে, যেদিন সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে, যেদিন নষ্টদের দানবমুঠোতে ধরা পড়বে এ দেশের লাল-সবুজ পতাকা, যেদিন ‘আমার সোনার বাংলা’র পরিবর্তে প্রত্যেকটি অলিতে-গলিতে ‘পাক সার জমিন সাদ বাদ’ বেজে উঠবে, যেদিন মানবিকতাকে জবাই করে হত্যা করা হবে জনসমক্ষে, যেদিন তোমরা পয়লা বৈশাখে শাড়ি/পাঞ্জাবি পরে বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে পারবে না, যেদিন তোমরা শহীদ মিনারে ফুল দিতে প্রভাত ফেরীতে অংশ নিতে পারবে না, যেদিন তোমরা এক বুক দরদ নিয়ে ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি…’ গাইতে পারবে না, যেদিন ভিন্ন ধর্মাবলম্বী মেয়েদের যৌনদাসী বানিয়ে বিক্রি করা হবে হাট-বাজারে, যেদিন তোমরা ম্যাচিং করা জামা পরে প্রিয় মানুষটির সঙ্গে হাত ধরে হাঁটতে পারবে না, যেদিন বেপর্দা সেলফি তোলার অপরাধের তোমাদের শরীরে ধেয়ে আসবে প্রবল-প্রচণ্ড পাথর বৃষ্টি, সেদিন তোমাদের তোষণে ও লেহনে ফুসে ওঠা সেই ভয়াল দানবের থাবা থেকে তোমাদের কেউ বাঁচাতে আসবে না…

কেউ না…

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.