চুল আমার, অন্যের ঘুম হারাম

0

Thoughtsইতু ইত্তিলা: আমার আত্মীয় স্বজন- ক্লাসমেইট-শিক্ষক-মা বাবা সবারই আমার চুল নিয়ে বিশেষ সমস্যা লক্ষ্য করে আসছি ছোটবেলা থেকেই। এমনকি প্রথম দেখায় অধিকাংশ মানুষই আমার চুল নিয়ে আপত্তি তুলেছে-তুলছে, অনধিকার চর্চা করে যাচ্ছে। তাদের কথাবার্তা শুনলে মনে হয়, তাদের যাবতীয় সুখ সমৃদ্ধি আমার ওই ছোট চুলেই আটকে আছে। বয়সে অতি ছোট ছিলাম বলে আগে কিছু বলতাম না। এখন মাঝে মাঝে পাল্টা কথা বলে ফেলি বলে, ‘বেয়াদপ’ খেতাব পাচ্ছি।

আগে মা বাবা এসব নিয়ে অনেক বকেছে, কিন্তু আমি আমার অবস্থান থেকে এক ‘চুল’ ও নড়ি নি। যুক্তি না দেখিয়ে, কেবল মানুষ খারাপ বলে, দেখতে সুন্দর লাগে না, এইসব বললে আমি মানব কেন? মানুষ খারাপ বললে আমার কি? ভালো খারাপ কি চুল দিয়ে হয়? অন্যের সুন্দর লাগে কি লাগে না সেসব জেনে আমি কি করব?
মা বাবা এখন অনেকটাই অভ্যস্থ হয়ে গেছে, তাই আর কিছু বলে না, এখন অনেকটা আমার পক্ষেই চলে এসেছে মনে হয়। কিছুদিন আগে একটা অনুষ্ঠানে বাবার এক বন্ধুর সাথে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছিল, বন্ধু প্রথম দেখায় বলে উঠল, ছেলে না মেয়ে কেমনে বুঝব? বাবা বলল, বুঝার দরকার কি? ছেলে মেয়ে তো একই ব্যাপার হল।

স্কুলটা মিশনারি হওয়ায় খুব বেশি সমস্যায় পড়তে হয়নি স্কুল জীবনে। তবে কলেজের প্রথম দিন থেকেই এই নিয়ে আমি নানা প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছি-হচ্ছি।

ক্লাশ মেইটরা যখন বলে, তোমার চুল ছোট কেন? বলি, আমার চুলগুলো লম্বা হয় না, একটু টেনে দাও না প্লিজ, আরাম লাগে মত,এতে চুল লম্বা হয়ে যাওয়ার একটা সম্ভবানা আছে। আমার কাছ থেকে এমন ফাইজলামিময় উত্তর পেয়ে তারা আরও সিরিয়াস হয়ে জানতে চায়, ‘চুল ছোট কেন?’

আমি পাল্টা প্রশ্ন করি, তোমার চুল লম্বা কেন? ওরা বলে, ভালো লাগে তাই। আমি বলি, আমার ও ভালো লাগে তাই। তারপর বলে, কিন্তু মেয়েরা তো চুল ছোট রাখে, এটাই নিয়ম। আমি বলি, আমি রাখি না, এই নিয়ম পছন্দ না। কোন সমস্যা? তারপর বলে, না সমস্যা নেই, তবুও……..

কলেজের শুরু থেকেই একজন ম্যাডাম আমার চুলের পিছনে লেগে আছেন। ওনারও সব সুখ সমৃদ্ধি আমার চুলে আটকে আছে। উনি সেই প্রথম থেকেই আমাকে এই নিয়ে নানা উপদেশমূলক কথাবার্তা শুনাচ্ছেন, আমি ম্যাডামের সামনে ‘ইয়েস ম্যাম, ইয়েস ম্যাম’ করলেও আমার কোন পরিবর্তন দেখতে না পেয়ে উনি বেশ হতাশ হয়েছেন। ক’দিন আগে ডেকে নিয়ে গিয়ে কিছু প্রথাগত কথাবার্তা বলে আমাকে বুঝানোর বিশেষ চেষ্টা করলেন। আমি তো সেই আগের মত, ‘ইয়েস ম্যাম, ইয়েস ম্যাম’। ম্যাডামের সাথে এই বিষয় নিয়ে পাল্টা কিছু বলে বিপদে পরতে চাই না। কারন আমার যুক্তি তার হিজাবের উপর দিয়ে চলে যাবে। আবার আমার যুক্তিকে তিনি অশ্রদ্ধা মনে করলে তো মহাসমস্যা। অশ্রদ্ধা তো আমি করি না তাকে।

শুধু ম্যাডাম কিংবা মা বাবার কথা বলছি কেন? এসব নিয়ে ফেইসবুকের ‘প্রথা বিরোধী'(?)-দের ও তো বেশ আপত্তি লক্ষ্য করেছি।

‘চুল বড় করলে সুন্দর দেখাবে’– লম্বা চুল আমার ভয়ংকর বিরক্ত লাগে, কানের নিচে চুল লাগলেই মনে হয় ঝাড়ু কানে লাগছে। নিজেকে অস্বস্তিতে রেখে অন্যর চোখে সুন্দর হওয়ার মত যন্ত্রনাদায়ক আর কিছু আছে?

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখাটি ৩১৬ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.