বুলেট নয়, বইয়ে বিনিয়োগ করুন: মালালা

Malala Fund 2উইমেন চ্যাপ্টার: পাকিস্তানি মানবাধিকার কর্মী ও নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী কিশোরী মালালা ইউসুফজাইয়ের আঠারতম জন্মদিনে ইচ্ছা একটাই, বিশ্ব নেতারা এখন থেকে বইয়ের পিছনে বেশি বিনিয়োগ করবে, বুলেটের চেয়ে। তিনি বলেছেন, মাত্র আটদিন সামরিক বাহিনীর পিছনে খরচ বন্ধ রাখলে সেই অর্থ দিয়ে শিশুদের ১২ বছর ফ্রি পড়ানো সম্ভব।

মালালা বলেছেন, বিশ্ব নেতারা যদি মাত্র একটি সপ্তাহ সময় নেন, একদিনের জন্য যুদ্ধ থেকে এবং অস্ত্র ব্যবহার থেকে ছুটি নেন, তাহলে বিশ্বের প্রতিটি শিশুকে স্কুলে পাঠানো সম্ভব। মঙ্গলবার অসলোতে এডুকেশন ফর ডেভেলপমেন্ট সামিটে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মালালা একথা বলেন।

“বুলেটের চাইতে আমাদের ভবিষ্যতের জন্য বই-ই হচ্ছে সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ। বুলেট নয়, বই-ই বিশ্বকে শান্তি এবং উন্নতির দিকে নিয়ে যাওয়ার পথ প্রশস্ত করতে পারে। মালালার এ বক্তব্যের মধ্য দিয়ে মালালা ফান্ড ব্লগে তিনি যে পোস্ট দিয়েছে, তারই প্রতিফলন ঘটেছে। তিনি শান্তি এবং শিক্ষার জন্য যে বার্তা পাঠিয়েছেন, তা ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে সাধারণ মানুষকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেক ব্যবহারের অনুরোধ জানান।

তিনি এমনও বলেন যে, নিজের প্রিয় বই হাতে নিয়ে ছবি তুলে সেই ছবি শেয়ার করুন এবং কেন আপনি এটা শেয়ার করছেন এবং কেন বিশ্বনেতাদের এটা করা উচিত, তা #booksnotbullets লিখে জানিয়ে দিন। মালালা নিজে আনা ফ্রাঙ্কের ‘দ্য ডায়েরি অফ এ ইয়াং গার্ল’ বইটির একটি কপি হাতে নিয়ে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। তিনি সেখানে লিখেছেন, এই বইটি যুদ্ধ আর সংঘাতের মধ্যে বাস করা একজন কিশোরী মেয়ের সাহস এবং শক্তির মূর্তপ্রতীক। এই বইটা তাকে এই ধারণা দেদয় যে, প্রতিটি শিশুর স্বপ্ন দেখার অধিকার আছে, শিক্ষার অধিকার আছে এবং শান্তিতে থাকার অধিকার আছে।  

 

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.