তত্ত্বাবধায়ক এলে দুজনকেই আবার জেলে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

PMউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক (২১ জুন): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দলীয় সরকারের অধীনেই দেশে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে। মানুষ সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে ভোট দিয়ে নিজের পছন্দের প্রার্থী বেছে নেবে। বিএনপির চেয়ারপারসন ও বিরোধী দলীয় নেতার উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার এলে আপনাকে-আমাকে দুজনকেই আবার জেলে যেতে হবে। তাই তত্ত্বাবধায়ক, তত্ত্বাবধায়ক করবেন না’।

শুক্রবার বিকালে আওয়ামী লীগের ৬৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বর্তমান সরকারের আমলে প্রত্যেকটি নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের ধীনে কোন নির্বাচনকে কোনভাবেই কেউ প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারেনি। কারণ আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়।

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় গেলে সন্ত্রাস হয়, দুর্নীতি হয়। মানুষের অধিকার কেড়ে নেয়া হয়।’ সন্ত্রাসী ও দুর্নীতিবাজরা যাতে ক্ষমতায় না আসতে পারে এব্যাপারে সবাইকে সচেতন হতে হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

বিএনপি নেতা বর্তমানে সিঙ্গাপুরে রয়েছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “সিঙ্গাপুর থেকে এসে আবার কোন ষড়যন্ত্র করেন, এ জন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। এর আগে একবার সিঙ্গাপুর থেকে ঘুরে এসে ৪৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছিলেন।”

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মাওলানা গোলাম মাওলা নক্সবন্দী, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দীলিপ বড়ুয়া, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শরীফ নূরুল আম্বিয়া, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান মল্লিক, আওয়ামী লীগের জাহাঙ্গীর কবির নানক, অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু, এম এ আজিজ, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, সিমিন হোসেন রিমি, এ কে এম রহমত উল্লাহ, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও ড. আবদুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

সভা পরিচালনা করেন আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক অসীম কুমার উকিল।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.