আত্মপক্ষ সমর্থন

fashionউম্মে রায়হানা: উম্মে ফারহানা এবং লুসিফার লায়লা আমার লেখার যে শিরোনাম ‘হিজাব বিরোধিতাই কি প্রগতিশীলতার মাপকাঠি?’ নিয়ে তাঁদের মূল্যবান সময়, মেধা ও শ্রম ব্যয় করেছেন সেই শিরোনামটি আমার নয়, বরং উইমেন চ্যাপ্টার সম্পাদক সুপ্রীতি ধরের দেওয়া।

প্রগতিশীলতা একটি বায়বীয় ধারণামাত্র। কে প্রগতিশীল, কে নয়- তা নির্ধারণ করার আমি কেউ না। বরং অন্যের জন্য ‘আদর্শ’ তৈরি করার বিপক্ষেই আমার অবস্থান।

আমার লেখার শিরোনাম ছিল – ‘আসুন, বিরোধিতা ও বিভাজনের রাজনীতিকে চিহ্নিত করি’। শিরোনামেই আমার মূল বক্তব্য স্পষ্ট ছিল। সুপ্রীতিদি হয়তো বিষয়টি আরও স্পষ্ট করে তোলার জন্যই শিরোনামটি পাল্টে দিয়েছিলেন, যা আরও ভুল বোঝাবুঝি তৈরি করেছে।

সুপ্রীতিদি ও কাবেরীদির (কাবেরী গায়েন) অনুরোধেই কলম ধরেছিলাম। নইলে যার যাকে ইচ্ছা কাদা ছুড়বেন, আমার তাতে কিছু বলার থাকা উচিত নয়।

অন্যের প্রতি এমন তীব্র বিদ্বেষ (রং মেখে সং সাজা অথবা রংমহল হোটেলে ঢোকা- যেন অন্য কেউ মেকআপ করে না বা বেশ্যাবৃত্তি নারীর অপরাধ) নিয়ে মানবিকতার কথা বলা একটু বিরল বলেই খটকা ছিল। আমার যা বলার আগের লেখায় বলে ফেলেছি। এ নিয়ে আর কিছুই বলার নেই।

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.