দানব কোথায় থাকে?

0

আমি তাকে নাতনী ভাবি 

সে আমাকে নানা ভাবে 

সুযোগ পেলেই নাতনীটাকে 

আদর করি নানাভাবে

Draupodi 1উম্মে ফারহানা মৌ: ভাববেন না এটা কোন চটি বইয়ের ছড়া, কোন পর্নো লেখকের আদিরস তৈরির প্রক্রিয়া।  এটি এদেশের স্বনামধন্য ছড়াকার লুতফর রহমান রিটনের লেখা ‘এডাল্ট ছড়া’ শিরোনামে লেখা একগুচ্ছ অশ্লীল ছড়ার একটির প্রথম স্ট্যানজা।

বাকি ছড়াগুলোর বিষয়ববস্তুর মধ্যে ছিল পুরুষের টানবাজারপ্রীতি আর হোস্টেলে দুটি মেয়ের এক চাদরের নিচে শোয়ার মতন আর অনেক অশ্লীল বিষয় (আপাতত সেগুলোর দিকে যাচ্ছিনা) আর ছাপা হয়েছিল সাপ্তাহিক ২০০০ এর ঈদ সংখ্যায়।

আজ যখন কন্যা শিশুরা ধর্ষিত হচ্ছে স্কুলে কলেজে মাদ্রাসায়, সকলে ছিছিক্কার করছে, বিচার চাইছে, ধর্ষক আর নিপীড়ককে আখ্যায়িত করছে পশু, জানোয়ার, দানব, শয়তান বা এরকম আর অনেক ঘৃণাপূর্ণ বিশেষণে, তখন আমার মনে পড়ছে এই তথাকথিত বিখ্যাত ছড়াকারের কথা।

তখন তার লেখা এহেন অশ্লীল ছড়ার বিরুদ্ধে কার কোন প্রতিবাদের কথা শুনিনি। হয়তো কেউ কেউ অপছন্দ করে থাকবেন, কিন্তু তাতে করে দেশের বিখ্যাত সাপ্তাহিকের এটা ছাপাতে বাধেনি। এডাল্ট আদিরসের অন্যান্য যে কোন ছড়ার সংগে এই ছড়াটির একটি মৌলিক পার্থক্য আছে। অন্য ছড়াগুলোতে কামবোধ ও যৌন ইচ্ছার বিভিন্ন ধরন নিয়ে কথা বলে সুড়সুড়ি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এই ছড়াটি সরাসরি যৌন নিপীড়নকে সুড়সুড়ির বিষয়ে পরিণত করেছে, ন্যারেটর নিপীড়ক স্বয়ং।

যে দেশে অভিজাত পত্রিকার ঈদ সংখ্যায় প্রকাশ্যে যৌন নিপীড়নকে ‘মজা’য় পরিণত করা ছড়া ছাপা হয় সেই দেশে শিশু ধর্ষণ খুব সাধারণ ঘটনা হবার কথা। যে কোন বিকৃত যৌনচর্চার কথা লেখা হতে পারে, ছাপা হতে পারে, কিন্তু সেগুলা কচি ডাব কিংবা রসের হালুয়া ধরনের রাস্তার পাশে বিক্রি হওয়া সস্তা পত্রিকায়, ২০০০ এর মতন খানদানি পত্রিকায় নয়। কিন্তু এই না হবার বিষয়টি হয়েছে বহু আগে।

যে ছড়াকার এই ছড়া লিখতে পেরেছে, যে শিল্পী এই ছড়ার ইলাস্ট্রেশন আঁকতে পেরেছে, যে প্রকাশক এই ছড়া ছাপতে পেরেছে, আর যে পাঠক এই ছড়া পড়ে মজা নিতে পেরেছে তারা সকলেই পটেনশিয়াল রেপিস্ট, তারা সকলেই এই ছড়ার নানা, যারা কিশোরী তরুণী নয় বরং শিশুকে ধর্ষণ করে বা করতে চায়। পেডিফিলিকরা ছেলে শিশুদেরও যৌন নিপীড়ণ করে থাকে, কিন্তু লক্ষ্য করুন, এই ছড়ায় শুধু মেয়ে শিশুর কথাই বলা হয়েছে।

শিশু ধর্ষক মঙ্গল গ্রহ থেকে নেমে আসে না, এরা আমাদের পরিবারের, আমাদের সমাজের, আমাদের লেখক কবি শিল্পী আর বুদ্ধিজীবীদের মধ্যেই মিশে থাকে। এই দানবদের চিহ্নিত করুন।

লেখক: জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়

(লেখকের ব্যক্তিগত মতামতের জন্য উইমেন চ্যাপ্টার দায়ী নয়)

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখাটি ৪৪৬ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.