আমার না বলা গল্প-৩

যৌন মর্ষকাম, বাংলাদেশ ও ভারতশামীম আরা নীপা: বাসে যাচ্ছি … সামনে তিনটা সিট পরে একজন ভদ্র মহিলা এবং উনার ১২/১৩ বছরের মেয়ে বসা। অনেক মানুষই বাসে উঠছে, ঐখানে দাঁড়াচ্ছে আবার নেমে যাচ্ছে। কেন জানি না, আমি বারবার ওইদিকেই দেখছিলাম।

এক মধ্য বয়সী লোক উঠলো বাসে এবং ঠিক মেয়েটির পাশে গিয়ে দাঁড়ালো। আমি বরাবরের মতো ঐদিকেই দেখছিলাম। ২/৩ মিনিট পর আমার চোখ ঐদিকেই আটকে থাকলো। আমি বুঝতে চেষ্টা করছিলাম যে আমি যা দেখছি তা ঠিক নাকি আমি ভুল বুঝছি।

মধ্য বয়সী লোকটি সোনার খনি খোঁজার মতো করে মেয়েটির গলা বেয়ে বুকের দিকে তাকিয়ে কিছু খুঁজছিল!!! ওড়নাটা ভেদ করে যদি কিছু দেখতে পায়, সেই চেষ্টায় পারলে চোখ দিয়ে ঢুকে যাচ্ছিলো মেয়েটার শরীরে!!! আমি নিশ্চিত হওয়ার পর ৫ মিনিট থেকে ঐ ন-পুংসকের দিকে তাকিয়ে থাকলাম অপলক চোখে, তারপর ঐ পশুর দৃষ্টি এসে পড়লো আমার উপর। আমি চোখ সরাচ্ছিলাম না।

ঐ হারামী হকচকিয়ে আমার দিকে তাকিয়ে মনে মনে বিড়বিড় করছিলো …।

আমি তাকিয়ে জিজ্ঞেস করলাম কি দেখেন???

কোন উত্তর নাই …

কেউ কিছু বুঝলো না, শুধু কেউ কেউ অবাক হয়ে তাকালো। আবার সে ঐ কাজে লিপ্ত হতে যেয়ে আমার দিকে তাকানোতে নিজেকে কিছুটা সামলে পেছনের এক সিটে গিয়ে বসলো।

আমি মারার জন্য দাঁড়িয়ে গিয়েও আবার নিজেকে কাপুরুষের মতো নিয়ন্ত্রণ করে ফেললাম। এই চাপটা আমি নিতে পারছি না। আমার লিখতে না পারার পেছনের এটা একটা অন্যতম কারণ। আমি কেন ঐ ন-পুংসককে সেদিন মারলাম না, কেন লাত্থি দিয়ে বাস থেকে নামায়ে দিলাম না সেই পাপবোধে আমি লিখতে পারছি না।

সমাজ এ কোথায় সমস্যা নাই??? কত সংস্কার বাকী ???

আমি নিষ্ক্রিয় … আমরা নিষ্ক্রিয় …

মুক্তি পাক সচেতনতা …।

মার্চ ৪, ২০১৩

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.