একমাসেও অভিজিৎ হত্যার অগ্রগতি নেই: বন্যা

Avijit-Bonya
বন্যা ও অভিজিৎ

উইমেন চ্যাপ্টার: একমাস হয়ে গেলেও লেখক ও ব্লগার ড. অভিজিৎ রায় হত্যাকাণ্ডের কোনো সুরাহা না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নিহতের স্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী লেখক ও ব্লগার রাফিদা বন্যা আহমেদ।

তিনি বলেছেন, এই ঘটনার পর এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা, রিপোর্ট প্রকাশের পর একজন মাত্র সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করা ছাড়া এই তদন্তের আর কোনো অগ্রগতি হয়নি। আনসার বাংলা-৭ এর নেতারা এখন কোথায় লুকিয়ে আছে? কেনো তাদেরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না বা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধরা হচ্ছে না?

টেলিফোনে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বন্যা বলেন, আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার তদন্তে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও, অভিজিৎ হত্যার পর থেকে আজ পর্যন্ত বাংলাদেশ সরকারও এ বিষয়ে সম্পূর্ণ নিশ্চুপ থেকেছে। এটি খুবই আশংকাজনক এবং ভীতিকর একটি অবস্থা।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বইমেলা থেকে ফেরার পথে স্বামী অভিজিৎ রায় এবং বন্যা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে হামলার শিকার হন। চাপাতির কোপে অভিজিৎ রায়ের মৃত্যু হলেও মাথায় কোপ লাগে বন্যার। তার একটি আঙ্গুলও তিনি হারান ওই হামলায়।

বন্যা বলেন, চিকিৎসকরা তার বিভিন্ন ক্ষত সারিয়ে তোলার চেষ্টা করছেন, বেশ কয়েকটি অপারেশন করা হয়েছে। মাথায় চারটি আঘাতের চিকিৎসা করা হয়েছে। আরও কয়েকটি অপারেশন করতে হবে বলেও জানান তিনি। বলছিলেন, ‘এখনও খুব দুর্বল বোধ করছেন, ঘুমাতে পারেন না। অনেক মানুষের এতো সহায়তার পরও খুবই কঠিন সময় পার করছেন তিনি। তবে অনেকেই লিখছেন, প্রতিবাদ করছেন, বিক্ষোভ করছেন, এটা কিছুটা হলেও সাহস জুগায়’।

বন্যা বলেন, যুক্তিবাদী লেখকদের ওপর এরকম হামলা বাংলাদেশে এটাই প্রথম নয়। এর আগেও এরকম ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু বিচার না হওয়ায় এটা একদিকে যেমন সন্ত্রাসীদের অভয়রাণ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে, তেমনি হতাশায় মুষড়ে পড়েছে সাধারণ জনগণ। সরকারের প্রতি অনুরোধ, ধর্মীয় সন্ত্রাসবাদকে শিকড়সহ উপড়ে ফেলা হোক, লেখক-হত্যাকারীদের বিচারের আওতায় না এনে তাদেরকে অব্যাহতি দেওয়ার সংস্কৃতি বন্ধ করা হোক।

অভিজিৎ-এর স্ত্রী, তাঁর সহযাত্রী লেখক, এবং একজন মুক্তমনা হিসাবে, তিনি এই নির্মম হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানানোর পাশাপাশি বাংলাদেশ সরকারের প্রতি অভিজিৎ হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে তাদের অবস্থান স্পষ্ট করার জন্য এবং এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু এবং পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করার দাবি জানান।

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.