বিয়ে করছি না, তো তোমার কি?

Free 1ঝর্ণা মনি: বয়স কত হলো? ৩৫। বিয়ে করছ না কেন? এমনি। বাবা মা বিয়ের কথা বলে না? ভাইয়েরা চিল্লায় না? পাড়া প্রতিবেশিরা কিছু বলে না? বন্ধুরা প্রশ্ন করে না? বিরহ? প্রেম করে ছ্যাঁকা খেয়েছ? লিভ টুগেদার আছে? নাকি শারীরিক কোনো সমস্যা?

না এসব কিছুই নয়।

এবার সত্যি সত্যি চোখ কপালে উঠলো। বলে কী মেয়ে? এসব কিছু নয়? তাহলে আইবুড়ি কেন?

বিয়ে ভালো লাগে না। সংসার পছন্দ না। বাচ্চা-কাচ্চা আরো অসহ্য। সবচে বড় কথা, একা থাকতেই অভ্যস্ত। আমি স্বাধীনতা পছন্দ করি।

এমা। এই মেয়ে তো পুরোপরি পাগল। একে তো মানসিক ডাক্তার দেখানো উচিৎ।

প্রিয় পাঠক। আমরা বৃত্ত ভাঙ্গতে পারি না। বৃত্তের বাইরে দাঁড়িয়ে কোনো চিন্তা করতে পারি না। ৩৫ বছর পরও কেন বিয়ে করছি না, এই চিন্তায় দিনরাত ঘুমাতে পারেন না আমার চারপাশের কিছু অতি চিন্তিত মানুষ।

ভেবে পাই না, দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রীধারী একজন ব্যক্তি যখন নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে শ্বাপদ-সংকুল শহরে একাই যুদ্ধ করে, তখন তার পাশে না দাঁড়ালেও বিরক্তির কারণ হন অনেকেই। যেন বিয়েটাই জীবনের একমাত্র নিয়তি, বেঁচে থাকার একমাত্র উপায়, এ নিয়ে মহাভারত রচনাও করেন কেউ কেউ। আর চরিত্রে কালিমা লেপার মানুষের তো অভাব নেই। ইচ্ছে মতো গল্প, উপন্যাস লেখা যায়। নানা মুখরোচক উপাদেয় কাহিনী তৈরি করে বাজারে চালু করে দিলেই খেল খতম। এবার যাও বাপু। দেখ, কেমন লাগে? বিয়ে করবা না, আবার বিয়ের কথা বললে ত্যাড়া ত্যাড়া উত্তর দিবা, এবার বুঝ। ঠ্যালা সামলাও।

সত্যি ঠ্যালা সামলাতে সামলাতে অস্থির। মনে হয়, পালাই। কোথাও চলে যাই। যেখানে কেউ চিনবে না। কেউ গায়ে পড়ে কল্পকাহিনী বানাবে না। বিয়ের জন্য উঠেপড়ে লাগবে না। শারীরিক বা মানসিক প্রতিবন্ধি বানাবে না।

আবার ভাবি, কোথায় যাবো? সেখানেও যে, শিয়াল-কুকুরের চিৎকার থাকবে না, পেছনে তাড়া করবে না বুনো শুয়োরের পাল, এমন গ্যারেন্টি কই?

আচ্ছা, একটা মেয়ে যদি বিয়ে না করে ভালো থাকে, শান্তিতে থাকে, অন্যের ক্ষতির কারণ না হয়ে দাঁড়ায়, তাহলে কেন তাকে ডিস্টার্ব করা? এ কেমন সমাজ আমাদের? কবে বদলাবে মানসিকতা?

 

 

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.