সম্পর্ক ভাঙতেই পারে

0

নাজিয়া হক অনি: অনার্সে পড়ার সময় এক ছেলের সাথে আমার প্রেম হয়। সর্ম্পকটা এক বছরের বেশী সময় হবার পর আমি শারীরিক সর্ম্পকে জড়িয়ে পড়ি। বছর দুয়েক পরে সম্পর্কের অবনতি ঘটে সেই ছেলের তরফ থেকে। এরপর ধীরে ধীরে নিজেকে সেখান থেকে ফিরিয়ে আনি।

বর্তমানে আমি বিবাহিত। মাসখানেক হলো পরিবারের পছন্দে আমার বিয়ে হয়েছে। সমস্যা হলো, আমার স্বামী যখন আমার সাথে শারীরিক সম্পর্কে জড়ায়, তখন আমার কাছে পূর্বের ঐ ছেলেটির স্মৃতি মনে পড়ে এবং আমি অস্বস্তিবোধ করি। এ থেকে বের হবার সমাধান কী?

আমার উত্তর দেবার আগে কিছু প্রশ্ন জানতে চাইবো, সত্যি উত্তর দিবেন। আমাকে দিতে না পারলেও নিজেকে নিজে।

১) আপনার বিবাহপূর্ব প্রেমিকের সাথে সম্পর্ক শেষ হবার পেছনে আপনি দায়ী, নাকি সে? দোষ থেকে থাকলে তা কার?

২) সম্পর্ক শেষ হবার পর আপনি নিজেকে সেখান থেকে সরিয়ে এনেছেন বলেছেন। সরিয়ে যদি এনে থাকেন তবে আগের স্মৃতি এখন মনে পড়া উচিৎ কি? বা মনে পড়লেও তা আপনার দৈনন্দিন কোন কাজে বাধা হয়ে দাঁড়ানো উচিৎ কি?

৩) বিয়ে করেছেন অর্থাৎ নতুন একটি জীবন শুরু করেছেন, যার দায়িত্ব আপনার ও আপনার স্বামীর দুজনের ওপরই বর্তায়। সেক্ষেত্রে আপনার স্বামী যদি আপনার সাথে ভালো ব্যবহার করে থাকেন এবং আপনিও বুঝেন যে, হ্যাঁ এই মানুষটি নির্দোষ, তাহলে আপনারও তাই করা উচিৎ নয় কি?

৪) পূর্বের কারো জন্য আপনার বর্তমান সঙ্গী অর্থাৎ স্বামীকে নিয়ে অস্বস্তিবোধ করাটা কি যৌক্তিক?

এবার আসি মূল কথায়, এই জায়গা থেকে বের হতে আপনাকে সময় দিতে হবে। আপনার স্বামীর সাহায্য নিন। তাকে সবকিছু যদি বলে থাকেন, তবে ঠিক আছে সমস্যা নেই। যদি না বলে থাকেন, তাহলে বলার দরকার নেই। হিতে-বিপরীত হতে পারে। প্রেমিক যুগলের মতো কিছু সময় কাটান। সম্পর্ক সুন্দর হয়ে গড়ে উঠতে দিন।

হ্যাঁ, বিয়ে হয়ে যাবার পর এই ব্যাপারগুলো শুরু করা একটু কঠিন, তবে অসম্ভব নয়। তবে অল্প কিছুদিন হয়েছে আপনার বিয়ের, কাজেই আশা করা যায় আপনার এই সমস্যা খুব দ্রুত ঠিক হয়ে যাবে। কাউকে ভালবাসলে সে যাই করুক তার স্মৃতি ঠিকই মনে পরে। কোন মানুষকেই আমরা জীবনে ভুলে যাই না, ভুলে যাবার ভান করি শুধু।

আপনার অতীতে যে প্রেমিক ছিল সে এখন নেই। তার কথা আপনার মনে পড়তে পারে, এটাও কোন সমস্যা না। সমস্যা হলো আপনার “অস্বস্তি” বোধ করার ব্যাপারটা। কেন অস্বস্তি বোধ করছেন, বের করার চেষ্টা করুন। যদি নিজেকে দোষী মনে হয় তবে কেন মনে হচ্ছে, তা বের করুন। আর সব কিছু ঠিক থাকলে অতীত যেন বর্তমান ও ভবিষ্যতের মাঝে বাধা না হয়ে দাঁড়ায় তা আপনাকেই নির্ধারণ করতে হবে।

একটু ভেবে দেখুন, আপনার পূর্বের সেই প্রেমিকের কি আপনার কথা মনে পড়বে? বা মনে পরে অস্বস্তি হবে? তবে আপনার কি দায় পড়েছে নিজের জীবনকে থামিয়ে রাখার, তাকে উপভোগ না করার! একটু ভাবুন সেও কি এমন করছে বা করবে আপনার জন্য? আশা করি বুঝাতে পেরেছেন, কী বলতে চাইছি। শুভকামনা রইলো। অনেক অনেক সুখী হোন।

-ডাঃ নাজিয়া হক অনি _____________________________________

দ্রষ্টব্য: নিজের কথা বলার কাউকে খুঁজে পাচ্ছেন না? আমরা আছি আপনার পাশে। আমরা আপনার কথা শুনবো। আমাদের বলুন। সাধ্যমতো সমাধান দেবার চেষ্টা করবো।

৪৫০-৫০০ শব্দের মধ্যে লিখে পাঠাতে পারেন [email protected] এই ঠিকানায়।

লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখাটি ৪,৮৬৫ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.