আসুন, তসলিমার জন্য কিছু করি

Taslimaউইমেন চ্যাপ্টার: তসলিমা নাসরিন, যিনি নারীর পক্ষে, সত্যের পক্ষে, প্রগতির পক্ষে, অন্যায়ের বিপক্ষে কলম ধরেছিলেন, অন্যায়ের প্রতিবাদ করে যাচ্ছেন আজও। তিনি আজ প্রায় একুশ বছর ধরে নিজ মাতৃভূমিতে নিষিদ্ধ হয়ে আছেন। তাঁর বইগুলো নিষিদ্ধ করা হয়েছে একের পর এক।

কিন্তু আমরা কেউ এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলিনি, নারীর জন্য লিখতে গিয়ে যেই মানুষটিকে নিজের জীবন বিপন্ন করতে হয়েছে, দেশ ছাড়া হতে হয়েছে, তাঁর কথা আমরা যেন ভুলে থাকতে পারলেই বাঁচি। তাঁর কথা মনে করলে তো, তাঁর এত এত ত্যাগের বিনিময়ে আমরা তাকে কি দিলাম- তার জন্য আমরা কতটুকু ত্যাগ স্বীকার করতে পারলাম- এর একটা সমীকরণ মিলানোর প্রয়োজন পরে। কিন্তু আমাদের কর্ম তো শূন্য। তাই তাঁর অবদানকে ভুলে গিয়ে তাঁকে যত ভুলে থাকা যায় ততই ভালো।

কারণ তসলিমার পক্ষে কথা বললে তো লাভ কিছু নেই, উল্টো উগ্রবাদীদের আক্রমণে নিজের মুণ্ডুটা হারানোর ভয় থাকে।

আমাদের এই নীরবতা তসলিমার খুব একটা ক্ষতি না করলেও আমাদের কিন্তু বেশ ক্ষতি করে ফেলেছে। আমাদের নীরবতায় জঙ্গি মৌলবাদীরা উৎসাহিত হয়েছে। স্বাধীন দেশে বসে আমরা বাক স্বাধীনতা পাই না, আর মৌলবাদীরা দেশের বিরুদ্ধে, প্রগতির বিরুদ্ধে কথা বলে চলছে, ফতোয়া দিয়ে চলছে, দা বটি নিয়ে রাস্তায় নেমে আমাদেরই হুমকি দিচ্ছে। যেন শহীদের রক্তে কেনা দেশটাকে আমরা এইসব সন্ত্রাসী জঙ্গিদের কাছে বিক্রি করে দিয়েছি।

এমনটা তো হতে পারে না, আমরা তাঁর অবদানকে অস্বীকার করতে পারি না। নারীর জন্য লড়ে যাওয়া এই ত্যাগী মানুষটিকে ভুলতে পারি না, তাঁর বিরুদ্ধে করা অপপ্রচার মেনে নিতে পারি না। মোল্লাদের অপপ্রচারের ফলে মানুষের মনে তসলিমা নাসরিন সম্পর্কে যেই ভুল ধারনা সৃষ্টি হয়েছিল তা দূর করতে, তসলিমা নাসরিনের বিরুদ্ধে সব ধরনের অপপ্রচার রুখে দিতে, তসলিমা নাসরিনের নারীর জন্য লেখা হাজার হাজার প্রতিবাদী শব্দ মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে আমরা তসলিমা পক্ষ কাজ করে যাচ্ছি।

নারী দিবসকে কেন্দ্র করে আগামী ১৩ই মার্চ, শুক্রবার আমরা তসলিমা পক্ষ শাহবাগে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। এছাড়া মার্চের এক তারিখ থেকে ১২ তারিখ পর্যন্ত আমরা ঢাকার বিভিন্ন কলেজ ভার্সিটিগুলোতে ক্যাম্পেইন করব। যারা নিজেদেরকে প্রগতির পক্ষের, মানবতার পক্ষের, সত্যের পক্ষের মানুষ মনে করেন, তারা এই কর্মসূচীতে আমাদের সাথে যোগ দিতে পারেন। ঢাকায় যারা আছেন তারা ফিল্ড ক্যাম্পেইনে ভলান্টিয়ার হিসেবে থাকতে পারেন, ঢাকার বাইরে যারা আছেন তারা অনলাইনে ক্যাম্পেইন করতে পারেন। এর জন্য আপনাকে তসলিমা পক্ষের সদস্য হতে হবে।

আহবায়ক, তসলিমা পক্ষ।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.