একটি ফোনকল এবং প্রধানমন্ত্রীর ফিরে আসা

PMসুলতানা রহমান: আরাফাত রহমান কোকো’র মৃত্যুর খবর শুনে হতবিহ্বল হয়ে যান খালেদা জিয়া। এই খালেদা জিয়া সাবেক প্রধানমন্ত্রী নন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া নন, নন আপোসহীন নেত্রী। এই খালেদা জিয়া কেবল একজন মা, যে মা তরুণ-সন্তান হারিয়ে শোকে মুহ্যমান। তিনি অঝোর ধারায় কাঁদছিলেন সাধারণ যেকোনো মায়ের মতোন।

সন্ধ্যায় যখন খবর এলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসবেন সমবেদনা জানাতে, মা খালেদা জিয়া তখনো শোকে স্তব্ধ। সিদ্ধান্ত নেয়ার মতো অবস্থা তার ছিল না। সেসময় বিএনপি কার্যালয়ে উপস্থিত সিনিয়র নেতারা আলোচনায় বসলেন, ঐক্যমত্য সিদ্ধান্ত নিলেন প্রধানমন্ত্রীকে দলের পক্ষ থেকে স্বাগত জানানো হবে। সেইমতো কার কি করণীয় হবে তা-ও চূড়ান্ত হলো। এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ার মধ্যে খালেদা জিয়া ছিলেন না, তবে তিনি জানতেন প্রধানমন্ত্রী আসছেন এবং এই আগমনী সংবাদে তার তেমন কোনো প্রতিক্রিয়া ছিল না, তিনি ছিলেন অনেকটা নির্বাক।

সব কিছু তখন প্রস্তুত, গুলশান কার্যালয়ের বাইরে অবস্থান নিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বাহিনী, গুলশানের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি বহর, ঠিক এমন একটি সময়ে বেজে উঠলো শিমুল বিশ্বাসের মোবাইল ফোন। ও প্রান্ত থেকে তাকে কি বলা হলো কেউ জানে না, সেখানে উপস্থিত বিএনপি’র সিনিয়র জুনিয়র নেতাকর্মীদের সামনে শিমুল বিশ্বাস চিৎকার করে উঠলেন ‘দেখা হবে না, দেখা হবেনা।’

হতচকিত দলের সিনিয়র নেতাদের কেউ কেউ কি বিষয় জানতে চাইলেন। শিমুল বিশ্বাস কাউকে কিছু না বলে নেতিবাচকভাবে হাত নাড়তে নাড়তে দৌড়ে নিচে গেলেন, প্রধান ফটক বন্ধ করে দিলেন।

সেদিন সন্ধ্যার এই বিবরণটি বলছিলেন সেসময় গুলশান কার্যালয়ে উপস্থিত বিএনপি’র একজন সিনিয়র নেতা। আমি জানতে চাইলাম-প্রধানমন্ত্রীকে ফিরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্তটি কি সঠিক ছিলো?

প্রশ্নটি শেষ করার আগেই তিনি উত্তর দিলেন-‘ভূল ছিলো। মারাত্মক ভূল। ইমম্যাচিউরড সিদ্ধান্ত। সেখানে উপস্থিত আমরা সবাই একমত হয়েছিলাম প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাবো। শুধুমাত্র একটি ব্যক্তি, শুধুমাত্র একটি ব্যক্তির জন্য সিদ্ধান্ত বদলে গেলো।

প্রশ্ন করলাম-কার সিদ্ধান্তে? সেই ব্যক্তিটি কি শিমুল বিশ্বাস? আমরা তো গণমাধ্যমের সামনে তাকেই দেখলাম।
বিএনপি ওই নেতা বললেন-নাহ, শিমুল বিশ্বাস তো কিছুইনা, ও বেচারাই বা কি করবে?
তাহলে কে? কে ফোন করেছিলো শিমুল বিশ্বাসকে?
বিএনপি নেতা বললেন, কি যে বলেন! সেই নাম আমি বলতে পারবো না।

প্রশ্ন করি-তাহলে বিএনপি চালাচ্ছে কে?
উত্তর দিলেন-ইটস অ্যা মিলিয়ন ডলার কোয়েশ্চেন!

(লেখক: টিভি সাংবাদিক)

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.