ড্যানফোর্থে ধর্ষণ প্রতিরোধে আলোচনা

Woman-depressed-500x368উইমেন চ্যাপ্টার: বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের তথ্য অনুযায়ী গত বছরের জানুয়ারি থেকে আগষ্ট অবধি এই সাত মাসে ৪৩১টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। যার মধ্যে ৮২টি গণধর্ষণ এবং ৪৫টি ধর্ষণ পরবর্তী হত্যাকাণ্ড। প্রকৃত ঘটনা হয়ত এর চেয়েও কয়েকগুণ বেশি হবে, যা সচরাচর পত্রিকায় রিপোর্ট হয় না।

নারী ও শিশু ধর্ষণ একটি ভয়াবহ সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে। পত্রিকাতে চোখ রাখলেই এধরনের খবর আমাদের চোখ এড়ায় না। কেননা ধর্ষণের এ ঘটনাগুলো রীতিমত বিভীষিকাময়।

নারীর প্রতি এধরনের জঘন্যতম সহিংসতা আমাদের সভ্যতাকে প্রতি মূহূর্তে কলংকিত করে চলেছে লাগামহীনভাবে। এটাকে থামাতে হবে এখনই। আসুন, ধর্ষণ প্রতিরোধে আমরা সংঘবদ্ধ হই এবং এধরনের জঘন্যতম সহিংসতা থেকে নারী ও শিশুদের রক্ষা করি। সেই সাথে নারী ও শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠাসহ একটি ন্যায্য সমাজ বিনির্মাণ করি।

এ লক্ষ্যে আগামী ১৭ জানুয়ারী শনিবার সকাল ১০টায় বেঙ্গলী ইনফরমেশন এ্যান্ড এমপ্লয়মেন্ট সার্ভিসেস (বায়েস) ও ভলান্টিয়ারস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, কানাডা এর উদ্যোগে একসেসপয়েন্ট, ৩০৭৯ ড্যানফোর্থ এভেন্যুতে একটি গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটি সবার জন্য উন্মুক্ত।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.