RFL

জেন্ডার বৈষম্যের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান

0

Africa genderউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: নারী ও মেয়েদের প্রতি সকল ধরনের বৈষম্যের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেসের জেনারেল সেক্রেটারি জোয়েলিনজিমা ভাভি। গত শুক্রবার তিনি বলেন, পুরুষতান্ত্রিকতা, নারীকেন্দ্রিক সহিংসতা, দক্ষ উন্নয়নমূলক এবং ভাল চাকরির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতার শিকার হচ্ছেন মেয়েরা।

পূর্ব লন্ডনে দক্ষিণ আফ্রিকা ডেমোক্রেটিক টিচার্স ইউনিয়নের সদস্যদের উদ্দেশ্যে বক্তৃতায় ভাভি বলেন, ১৯৯৪ সালের পর থেকে দেশে অনেক অগ্রগতি হলেও নারীরা এখনও অর্থনৈতিকভাবে নিপীড়ন আর বঞ্চনার শিকার হচ্ছেন। তারা দারিদ্র্য, বেকারত্ব এবং অসমতার শিকার। তিনি আরও বলেন, সমাজে শ্বেতাঙ্গ পুরুষরা এখনও অর্থনীতিতে আধিপত্য বিস্তার করছে, আর নারীদের অধিকাংশই চাকরিহীন এবং কপর্দকহীন জীবন কাটাচ্ছেন।

নারীরা জেন্ডার ভিত্তিক বিভিন্ন স্তরের সহিংসতারও শিকার। ভাভি দাবি করেন, প্রতি ছয় ঘন্টায় একজন নারী তার পুরুষ পার্টনারের হাতে খুন হচ্ছেন এবং প্রতিদিন প্রায় দেড়শ জন নারী ধর্ষণের শিকার হচ্ছেন। ‘আরও আশ্চর্য হচ্ছি দেখে যে, সেরেসে এই সপ্তাহে মাত্র চার মাস বয়সী এক কন্যা শিশুও ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ধরনের নৃশংসতা বর্ণনা করার মতোন ভাষাও খুঁজে পাই না’ বলেন তিনি।

ট্রেড ইউনিয়নের এই নেতা উপস্থিতদের উদ্দেশ্যে বলেন, একজন শিক্ষক এবং ট্রেড ইউনিয়নের সদস্য হিসেবে সবারই এ ধরনের বিকৃতির বিরুদ্ধে লড়াই করা বিশেষ দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। বিশেষ করে মানবিক গুণাবলি এবং ভবিষ্যত প্রজন্মের প্রতি দায়িত্ববোধের জন্যই সবার এখন সোচ্চার হওয়া উচিত।

ভাভি আরও বলেন, দেশ এখন গণতন্ত্রের দ্বিতীয় দশক পূর্তি পালন করতে যাচ্ছে, কিন্তু দেশটির অর্থনীতি এখন পর্যন্ত অধিকাংশ জনগণের দ্বারগোড়ায় পৌঁছায়নি। বেকারত্বের হার বাড়ছে প্রতিনিয়ত। বেকারদের শতকরা ৭২ ভাগেরই বয়স ১৫ থেকে ৩৬ বছরের মধ্যে। শিক্ষকদের জন্য এটা একটা উদ্বেগের চিত্র বলে বর্ণনা করেন মি. ভাভি।

লেখাটি ৫০ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

RFL
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.